৩৩৩ রানের বিশাল পরাজয় ভারতের

ওয়ান নিউজ ক্রীড়া ডেক্সঃ বিশ্বের এক নম্বর দল ভারত। নিজেদের মাটিতে টেস্ট। টানা ৫ বছর নিজেদের মাটিতে ২০ টেস্ট অপরাজিত। সব মিলিয়ে টানা ১৯ টেস্ট। এমন একটি দল নিজেদের মাটিতে হারতে পারে, বিরাট কোহলির নেতৃত্বধীন ভারত সম্ভবত সেটা স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারেনি।

কিন্তু মুদ্রার যে আরও একটা পিঠ আছে; সেটা অবশেষে দেখতে পেল কোহলি-অশ্বিন-জাদেজারা। পুনের মহারাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টেই পৌনে তিন দিনে হেরে গেল বিরাট কোহলির ভারত। পুরো দুই দিন এবং তৃতীয় দিনের অন্তত ১৫ ওভার বাকি থাকতেই ৩৩৩ রানের বিশাল পরাজয় মেনে নিতে বাধ্য হলো ভারতীয়দের। আর তাতে চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল অস্ট্রেলিয়া।

দ্বিতীয় ইনিংসে জয়ের জন্য ভারতের প্রয়োজন ছিল ৪৪১ রান। হাতে ছিল প্রায় আড়াই দিন। উইকেটে পড়ে থেকে খেলতে পারলে জয় নিশ্চিত; কিন্তু যে স্পিন দিয়ে অস্ট্রেলিয়াকে নাকাল করার পরিকল্পনা ছিল ভারতের, সেই স্পিনে নিজেরাই নাকাল হয়ে পড়লো। স্টিভেন ও’কেফি একাই ভারতকে টেনে মাটিতে নামালেন। দুই ইনিংস মিলিয়ে ১২ উইকেট নিয়ে একাই তিনি শেষ করে দিলেন ভারতকে। ম্যাচসেরাও ও`কেফি।

বড় লক্ষ্য দেখে ভড়কে যাওয়ার দল নয় ভারত! কিন্তু হায়। এ কী দশা! পাঁচ দিনের টেস্ট ম্যাচে পুরো পাঁচ দিন খেলতে পারেনি ভারত। খেলবেই বা কিভাবে? ও’কেফির প্রত্যেকটি বলই যেন একেকটি বারুদের গোলার মতো আসছিল। যার সামনে দাঁড়ানো কোহলি-পুজারা-রাহানে-রাহুলদের জন্য বড় কঠিনই ছিল। হয়েছেও ঠিক তা-ই। ভারতের নামিদামি ব্যাটসম্যানরা যোগ দিয়েছেন উইকেট পতনের মিছিলে।

দ্বিতীয় ইনিংসে ভারতের পাঁচ ব্যাটসম্যান আউট হয়েছেন এলবিডব্লিউর শিকার হয়ে। শুরুটা করেছিলেন মুরালি বিজয় (২)। ও’কেফির এলবিডব্লিউর ফাঁদে ভারতীয় এই ওপেনার। অপর ওপেনার লোকেশ রাহুলও ১০ রান করে একইভাবে পরাস্ত হয়েছেন লাথান লিওনের কাছে। ৩১ রান করা চেতেশ্বর পুজারাও ও`কেফির এলবিডব্লিউর শিকার। অশ্বিন (৮) ও ঋদ্ধিমান সাহা (৫) করলেন তা-ই। অর্থাৎ তারাও ও`কেফির কাছে হার মেনেছেন এলবিডব্লিউতে কাটা পড়ে।

অধিনায়ক কোহলি তো ও`কেফির নিচু হয়ে আসা বলটা বুঝতেই পারলেন না। সরাসরি বোল্ডআউট। ১৩ রানেই থামলেন কোহলি। আজিঙ্কা রাহানে (১৮) সাজঘরে ফিরলেন ও`কেফির বলে লিওনের হাতে ক্যাচ দিয়ে। শেষ দিকে ছিল লিওন শো। তিনি একে একে প্যাভিলিয়নে ফেরান রবীন্দ্র জাদেজা (৩), জয়ন্ত যাদব (৫) ও ইশান্ত শর্মাকে (০)।

মোদ্দা কথা, দ্বিতীয় ইনিংসে অস্ট্রেলিয়ার দুই স্পিনারেই কুপোকাত ভারত। ১৫ ওভারে চারটি মেডেনসহ ৩৫ রান খরচায় ৬ উইকেট নেন ও`কেফি। ১৪.৫ ওভারে দুটি মেডেনসহ ৫৩ রানে চার উইকেট ঝুড়িতে জমা করেন লিওন।

এর আগে প্রথম ইনিংসে মিচেল স্টার্ক ও ম্যাট রেনশ`র জোড়া ফিফটিতে ভর করে ২৬০ রানে অলআউট হয় অস্ট্রেলিয়া। জবাবে ভারতের প্রথম ইনিংস থামে ১০৫ রানে। লোকেশ রাহুল সর্বোচ্চ ৬৪ রান করেন। দ্বিতীয় ইনিংসে স্টিভেন স্মিথের সেঞ্চুরির সুবাদে অস্ট্রেলিয়া তোলে ২৮৫ রান।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.