আফগানিস্তানে বিমান হামলা চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

আফগানিস্তান থেকে সব মার্কিন সেনা সরিয়ে নেয়া হচ্ছে: পেন্টাগন

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ আফগানিস্তানে তালেবানদের অবস্থান লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। পেন্টাগন স্থানীয় সময় গতকাল বৃহস্পতিবার এ হামলার কথা জানিয়েছে। আফগানিস্তান থেকে সব মার্কিন সেনা সরিয়ে নেওয়ার প্রক্রিয়া প্রায় শেষ হয়েছে। এর মধ্যেই এ হামলার ঘটনা ঘটল। খবর এএফপির।

পেন্টাগনের মুখপাত্র জন কিরবি আফগানিস্তানের সরকারি বাহিনীর বরাত দিয়ে জানান, ‘গত কয়েক দিনে আফগানিস্তানের সেনাবাহিনীকে সহযোগিতা করতে আমরা বিমান হামলা চালিয়েছি।’ তবে কিরবি এই বিমান হামলা নিয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি।

এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, আফগানিস্তানের সেনাবাহিনীকে সহযোগিতা করতে এ রকম হামলা চলবে। তিনি আরও জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের আর্মি সেন্ট্রাল কমান্ড জেনারেল কেনেথ ম্যাকেঞ্জি এ হামলার বৈধতা দিয়েছেন।

স্থানীয় সময় গত বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন এক বিবৃতিতে জানান, যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তানের নিরাপত্তা বাহিনী ও আফগান সরকারকে সহযোগিতা দেবে।

একই দিনে যুক্তরাষ্ট্রের জয়েন্ট চিফস অব স্টাফের চেয়ারম্যান জেনারেল মার্ক মিলে বলেন, তালেবান জঙ্গিরা আফগানিস্তানের চার শতাধিক এলাকা নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে। তবে তালেবানরা আফগানিস্তানের জনবহুল প্রধান শহরগুলো নিয়ন্ত্রণে নিতে পারেনি। আগামী ৩১ আগস্ট আফগানিস্তান থেকে সব মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের প্রক্রিয়া শেষ হবে। এ পর্যন্ত ৯৫ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে।
মে মাস থেকেই তালেবানরা আফগানিস্তানে একের পর এক হামলা চালিয়ে যাচ্ছে।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.