আবারও আলোচনায় মোস্তাফিজ

ওয়ান নিউজঃ বুধবার সকালটা বাংলাদেশের বিস্ময় বালক মোস্তাফিজুর রহমানের জন্য ছিল অন্যরকম একটি দিন। প্রায় ছয় মাস পর এদিন প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে ফিরেছেন তিনি। দলকে জেতাতে না পারলেও বল হাতে নজর কেড়েছেন কাটার মাস্টার। তবে এ সবকিছু ছাপিয়ে গেছে আইসিসির বর্ষসেরা উদীয়মান ক্রিকেটার নির্বাচিত হওয়ায়। আর তাতেই তাকে নিয়ে আবারও আলোচনার ঝড় উঠেছে।

বাংলাদেশ তথা বিশ্বের নামীদামী সকল গণমাধ্যমগুলো ফলাও করে ছেপেছে মোস্তাফিজের কীর্তির কথা। শুধু গণমাধ্যমই নয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতেও মোস্তাফিজকে নিয়ে আলোচনা। অভিনন্দনের ফুলঝুড়ি ছুটেছে মোস্তাফিজের ফেসবুকের ভেরিফাইড পেজে। নিজেদের ফেসবুক পেজে অভিনন্দন জানিয়েছেন তার সতীর্থরাও।

বাংলাদেশের হয়ে প্রথমবার আইসিসির কোন পুরস্কার পেলেন মোস্তাফিজ। তাই আনন্দটা একটু বেশিই তার। নিজেও গোপন করেননি তা। নিজের অনুভূতির কথা প্রকাশ করে আইসিসি-ক্রিকেট ডটকমকে বলেন, ‘ক্যারিয়ারে সম্ভবত এখনও পর্যন্ত এটাই আমার সেরা প্রাপ্তি। এই পুরস্কার আমাকে আরও শক্তি ও সাহস যোগাবে। অবশ্যই এ পুরস্কার জয়ের কারণে আমি নিজেকে গর্বিত মনে করছি। বিশেষ করে বাংলাদেশের হয়ে এই প্রথম পুরস্কারটি জয়ের কারণে আমি সত্যিই আনন্দিত।’

পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের জনপ্রিয় সংবাদ মাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা মোস্তাফিজকে নিয়ে লিখেছে –‘আইসিসির বর্ষসেরা উদীয়মান ক্রিকেটার তিনিই। চোটের জন্য অনেকদিনই মাঠের বাইরে ছিলেন। যে ক’দিন খেলেছেন সেটাই আইসিসির কাছে যথেষ্ট ছিল তাকেই উদীয়মান ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার হিসেবে বেছে নিতে।’

২০১৫ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে ২০১৬ সালের ২০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে অনুষ্ঠিত ম্যাচগুলোর পারফরম্যান্সের ভিত্তিতেই বেছে নেওয়া হয়েছে মোস্তাফিজকে। আর এই সময়ের মধ্যে ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন মাত্র তিনটি। আর তাতে আট উইকেট পেয়েছেন তিনি। তবে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন অনেক বেশি। ১০ ম্যাচে ১৯ উইকেট ছিল তার ঝুলিতে।

Comments are closed.