এক নৌকা, ৩৮ রোহিঙ্গাকে ফেরত

ওয়ান নিউজঃ  উখিয়া ও টেকনাফের নাফ নদীর সীমান্ত দিয়ে এদেশে অনুপ্রবেশকালে একটি নৌকাসহ অন্তত ৩৮ রোহিঙ্গাকে ফেরত পাঠিয়েছে বিজিবি।
সোমবার উখিয়ার বালুখালী ও আঞ্জুমান পাড়া সীমান্ত ও টেকনাফের নাফ নদীর হ্নীলা পয়েন্টে এ অভিযান চালানো হয় বলে বিজিবির কর্মকর্তারা জানান।

বিজিবির টেকনাফ ২ ব্যাটালিয়নের উপ-অধিনায়ক মেজর রাসেল বলেন, হ্নীলার পয়েন্টে জলসীমার শূন্যরেখা অতিক্রম করে একটি নৌকায় করে রোহিঙ্গারা অনুপ্রবেশের চেষ্টা করে। এ সময় বিজিবির টহল দলের বাধার মুখে নৌকাটি রোহিঙ্গাদের নিয়ে আবার মিয়ানমারে ফেরত যায়।

নৌকাটিতে ১০ থেকে ১৫ জন রোহিঙ্গা ছিল বলে রাসেল জানান।

গত ১ ডিসেম্বর থেকে সোমবার পর্যন্ত টেকনাফের নাফ নদীর বিভিন্ন সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে অনুপ্রবেশের চেষ্টার সময় রোহিঙ্গাবাহী ১০৩ টির বেশি নৌকা ফেরত পাঠানো হয় বলে বিজিবির এ কর্মকর্তা জানান।

এছাড়া উখিয়ার বালুখালী ও আঞ্জুমান পাড়া সীমান্ত থেকে অনুপ্রবেশকারী ২৮জন রোহিঙ্গাকে ফেরত পাঠানো হয়েছে বলে বিজিবির কক্সবাজার ৩৪ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল ইমরান উল্লাহ সরকার জানান।

তিনি বলেন, ভোরে অনুপ্রবেশের চেষ্টায় থাকা রোহিঙ্গাদের মধ্যে ছয় পুরুষ, সাত নারী ও ১৫ জন শিশু ছিল।

গত ১ ডিসেম্বর থেকে এ পর্যন্ত উখিয়ার বিভিন্ন সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে অনুপ্রবেশের চেষ্টার সময় ১০৮ জন রোহিঙ্গাকে ফেরত পাঠানো হয়েছে বলে ইমরান জানান।

গত ৯ অক্টোবর মিয়ানমারের সীমান্ত রক্ষাবাহিনীর তিনটি নিরাপত্তা চৌকিতে ‘বিচ্ছিন্নতাবাদীদের’ হামলার পর দেশটির সেনাবাহিনী অভিযান শুরু করে। সেই থেকে রোহিঙ্গারা পালিয়ে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

প্রায় প্রতিদিন রোহিঙ্গাবাহী নৌকা ফেরত পাঠাচ্ছে বিজিবি। তবু সীমান্ত বাহিনীকে ফাঁকি দিয়ে ঢুকে পড়ছে তারা।

আগুন দিয়ে ঘর পুড়িয়ে দেওয়ার পর রাখাইনে কিভাবে হত‌্যা-ধর্ষণ চলছে সেই বিবরণ সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরেছে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া এসব রোহিজ্ঞা।

Comments are closed.