হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ভাড়াটে সংস্থা: হাছান

ওয়ান নিউজঃ বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ভুল ও মিথ্যা প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে দাবি করে সংস্থাটিকে ‘ভাড়াটে সংস্থা’ বলে অভিহিত করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

মঙ্গলবার সকালে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘হিউম্যান রাইটস ওয়াচ একটি ভাড়াটে সংগঠন। টাকা দিলে তাদের রিপোর্ট কেনা যায়। পয়সার বিনিময়ে তারা বিবৃতি দেয়, ভাড়ায় খাটে। এসব কর্মকাণ্ডের জন্য তারা সারা বিশ্বে সমালোচিত হচ্ছে।’

আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক বলেন, বাংলাদেশে বিএনপি-জামায়াত এবং যুদ্ধাপরাধীদের পক্ষে ভাড়া খাটে তারা। শুধু তাদের পক্ষে নয়, সিলেটে তারাপুর চা বাগানের সই জালিয়াতির কারণে আটক ব্যবসায়ী রাগিব আলীর পক্ষে বিবৃতি দিয়ে প্রমাণ করেছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ একটি ভাড়াটে সংগঠন।

বিএনপিকে উদ্দেশ্যে করে সাবেক এই বনমন্ত্রী বলেন, তারা (বিএনপি নেতারা) আজ একটি ভাড়াটে সংগঠনের বিবৃতি নিয়ে প্রতিদিন মিথ্যা বানোয়াট বক্তব্য দিচ্ছে। এতে তাদের দেউলিয়াত্ব প্রমাণ হয়েছে। বিএনপি নেতাদের নিয়মিত বক্তব্যে প্রমাণ হচ্ছে তারা এ বিবৃতি কিনেছে।

হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপি-জামায়াতের অগ্নি সন্ত্রাসের কারণে শত শত মানুষ মারা গেলেও হিউম্যান রাইটস ওয়াচ তা নিয়ে কোন বিবৃতিও দেয় নাই। তিনি বলেন, তারা যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ করতে বিবৃতি দিয়েছে। জামায়াতের লবিস্ট ফার্মের মাধ্যমে তারা অর্থ পান বলে অভিযোগ রয়েছে।

আওয়ামী লীগের এই মুখপাত্র বলেন, ২০০১-২০০৬ সাল পর্যন্ত বিএনপি-জামায়াত সরকারের আমলে আওয়ামী লীগের ২১ হাজার নেতাকর্মীকে হত্যা করা হলেও তখন সংস্থাটি নিরব ছিল।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, বিজ্ঞান বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সবুর, উপ-দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, ঢাকা মহানগর উত্তর শাখা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান, দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ।

 

Comments are closed.