জামায়াত না ছাড়লে জনগণ বিএনপিকে ছাড়বে : নাসিম

ওয়ান নিউজঃ আগামী নির্বাচনে জামায়াত না ছাড়লে জনগণ আপনাদেরকে চিরদিনের জন্য ছেড়ে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন। আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য মো. নাসিম বিএনপির উদ্দেশে এ কথা বলেছেন।

রবিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর সুপ্রিম কোর্ট মিলনায়তনে বাংলাদেশ জাতীয় জোটের (বিএনএ) দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মো. নাসিম বলেন, কিছু জঙ্গি অনুসারী ছাড়া কেউ আপনাদের সাথে নেই। জামায়াতকে ছাড়েন না কেন আপনারা বলেন তো? এত লোক বলে জামায়াতকে ছেড়ে দেন, একাত্তরের ঘাতকদের ছেড়ে দেন, তারপরও উনি ছাড়বেন না। জামায়াতকে যদি না ছাড়েন আগামী নির্বাচনে আপনাদেরকে জনগণ চিরদিনের জন্য ছেড়ে যাবে এ কথা আপনাকে ও আপনার দলকে বলতে পারি খালেদা জিয়া।

বিএনপির সাথে কোনো আলোচনা হবে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, নির্বাচন পরিচালনা করবে ইলেকশন কমিশন। আলোচনা যদি করতে হয় আপনারা তাদের সাথে আলোচনা করুন। এর আগে জিল্লুর রহমান সাহেব আলোচনায় আপনাদের ডেকেছিলেন। আলোচনা হয়েছিল, কিন্তু আপনারা মানেননি। আপনাদেরও একটি দল আমাদেরও একটি দল। আপনাদের সাথে কিসের আলোচনা? আলোচনা করে কোনো লাভ হয় না। অতীতে যে সব আলোচনা হয়েছে কোনো লাভ হয়নি।

তিনি আরো বলেন, আলোচনা একটা ফ্যাশন হয়ে গেছে। এ ফ্যাশনের দরকার নেই। আলোচনা করবো মাঠে। জনগণের ভোটের মাধ্যমে আলোচনা করবো। জনগণ যে রায় দেয় সেখানেই আলোচনা হবে। বিএনপি মানুষ খুন করেছে, বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার করেনি, তাদের সাথে কোনো আলোচনা হবে না।

শেখ হাসিনার অধীনে আগামী নির্বাচন হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা এক্সপেরিমেন্ট করেছিলাম। কিন্তু আর এক্সপেরিমেন্ট করবো না। রক্ত ঝরবে, জীবন যাবে এ রকম হতে পারে না। দুনিয়ায় যে নিয়ম সে নিয়ম অনুযায়ী আগামী নির্বাচন হবে। সংবিধান অনুযায়ী শেখ হাসিনার অধীনেই আগামী নির্বাচন হবে ইনশাআল্লাহ।

‘পরবর্তীতে মিছিল সমাবেশের অনুমতি নেবে না বিএনপি’ বিএনপির মহাসচিবের এমন বক্তব্যের প্রেক্ষিতে নাসিম বলেন, পারমিশন না নিলে যে কী অবস্থা হয় আমরা তো জানি! আমার বুঝেছি। পারমিশন না নিয়ে আমরা রাস্তায় মার খাইছি। আমাদের যা হয়েছিল আপনাদেরও তাই হবে।

পরে প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি ও আমন্ত্রিত অতিথিদের সমন্বয়ে কেক কেটে দিবসটি উদযাপন করা হয়।

ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমানসহ জোটের নেতৃবৃন্দ।

Comments are closed.