কেপটাউনে শ্রীলঙ্কাকে ‘টেস্ট শেখাল’ প্রোটিয়ারা

ওয়ান নিউজ ক্রীড়া ডেক্সঃ কেপটাউন টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকা যে জিততে যাচ্ছে তৃতীয় দিন শেষেই সেটি প্রায় নিশ্চিত ছিল। বৃহস্পতিবার টেস্টের চতুর্থ দিন দুই ঘণ্টার মধ্যেই লঙ্কানদের ইনিংসের যবনিকা টেনে ২৮২ রানের বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে প্রোটিয়ারা। এই জয়ের ফলে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই তিন ম্যাচ সিরিজ ২-০ ব্যবধানে জিতে নিয়েছে স্বাগতিকরা।

নিউ ল্যান্ডসে প্রথম ইনিংসে ৩৯২ রানের বড় সংগ্রহ গড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা। জবাবে প্রোটিয়া বোলারদের তোপের মুখে মাত্র ১১০ রানে গুটিয়ে যাওয়া শ্রীলঙ্কা হারের শঙ্কার মুখে পড়ে। দ্বিতীয় ইনিংসে ৭ উইকেটে ২২৪ রান তোলে ইনিংস ঘোষণা করে স্বাগতিকরা। ফলে শ্রীলঙ্কার সামনে ৫০৭ রানের প্রায় অসম্ভব লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়ায়। সেটির পেছনে ছুটতে গিয়ে মাত্র ২২৪ রানে গুটিয়ে যায় লঙ্কানরা। ফলে বড় জয় দিয়ে সিরিজ পকেটে পুরে প্রোটিয়ারা।

দ্বিতীয় ইনিংসে শ্রীলঙ্কার হয়ে কোনো ব্যাটসম্যানই হাফসেঞ্চুরির মুখ পর্যন্ত দেখেননি। অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ ৪৯, রঙ্গনা হেরাথ ৩৫, দিনেশ চান্দিমাল ৩০ ও কুশল সিভলা ২৯ রান করলেও সেটি দলের বড় হার রুখতে পারেনি।

শ্রীলঙ্কার ইনিংসে ধ্বংসযজ্ঞে নেতৃত্ব দেন প্রথম ইনিংসে ৪ উইকেট নেয়া ক্যাগিসো রাবাদা। ৫৫ রানে ৬ উইকেট নেন তিনি। এছাড়া ভারনন ফিল্যান্ডার ৩টি এবং কেশব মাহরেজ নেন ১টি উইকেট। ফিল্যান্ডারের পর দ্বিতীয় দক্ষিণ আফ্রিকান বোলার হিসেবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে কোনো টেস্ট ম্যাচে ১০ উইকেট নেয়ার রেকর্ড গড়েন রাবাদা।

বৃহস্পতিবার ৪ উইকেটে ১৩০ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই রাবাদার তোপের মুখে পড়েন শ্রীলঙ্কান ব্যাটসম্যানরা। দিনের প্রথম ঘণ্টায় একে একে চান্দিমাল, থারাঙ্গা, ম্যাথুজ ও লাকমলকে আউট করে দক্ষিণ আফ্রিকার বড় জয় অনেকটাই নিশ্চিত করেন রাবাদা। এরপর ফিল্যান্ডার ও মাহরেজ বাকি দুটি উইকেট তুলে নিয়ে স্বাগতিকদের ম্যাচ ও সিরিজ জয় নিশ্চিত করেন।

প্রথম ইনিংসে ২৮২ রানের বড় লিড নিয়ে ব্যাটিংয়ে নেমে ৭ উইকেটে ২২৪ রান তোলে ইনিংস ঘোষণা দক্ষিণ আফ্রিকা। ডিন এলগার ৫৫, ফাফ ডু প্লেসিস ৪১, স্টিফেন কুক ৩০, টেম্বা বাভুমা ২৯ ও জেপি ডুমিনি ৩০ রান করলে বড় লিড পায় প্রোটিয়ারা।

দ্বিতীয় ইনিংসে শ্রীলঙ্কার হয়ে সুরঙ্গা লাকমল চারটি এবং রঙ্গনা হেরাথ ও লাহিরু কুমারা একটি করে উইকেট নেন।

প্রথম ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৪০০ ছুঁই ছুঁই সংগ্রহ এনে দেয়ার কৃতিত্ব দুই সেঞ্চুরিয়ান এলগার (১২৯) ও ডি ককের। লাহিরু কুমারা শ্রীলঙ্কার হয়ে প্রথম ইনিংসে সর্বোচ্চ ৬ উইকেট নেন। লাকমল ও হেরাথ নেন দুটি করে উইকেট।

দক্ষিণ আফ্রিকার বড় সংগ্রহের জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে ফিল্যান্ডার (৪/২৭) ও রাবাদার (৪/৩৭) বোলিং তোপে পড়ে ১১০ রানে গুটিয়ে যাওয়ায় হারের পথ তৈরি হয় শ্রীলঙ্কার। দ্বিতীয় ইনিংসেও ভরাডুবির মধ্য দিয়ে যেটি বাস্তবে রূপ লাভ করে।

প্রসঙ্গত, পোর্ট এলিজাবেথ টেস্টে ২০৬ রানের বড় জয় দিয়ে তিন ম্যাচ সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। কেপটাউন টেস্টে জয়ের মধ্য দিয়ে সিরিজও ঘরে তোলে প্রোটিয়ারা। আগামী ১২ জানুয়ারি জোহানেসবার্গে দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার সিরিজের শেষ টেস্ট শুরু হবে। টেস্ট সিরিজের পর দল দুটি তিন ম্যাচের টি-টুয়েন্টি ও পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে লড়বে।

Comments are closed.