সাবেক মন্ত্রী মোস্তফা ফারুক আর নেই

ওয়ান নিউজ: সাবেক মন্ত্রী, কূটনীতিক ও আওয়ামী লীগ নেতা মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

বুধবার (৪ জানুয়ারি) রাত পৌনে ৮টার দিকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর।

মোস্তফা ফারুক স্ত্রী, দুই কন্যা সন্তান, অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। মোস্তফা ফারুকের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার মামাতো ভাই নাসিমুল হাবিব শিপার।

সাবেক আইসিটি মন্ত্রী এবং যশোর-২ আসনের আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য মোস্তফা ফারুকের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এক শোক বাণীতে তিনি বলেন, ‘তার মৃত্যুতে দেশ একজন নিবেদিত প্রাণ রাজনীতিবিদ ও কূটনীতিককে হারালো।’

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সাবেক সদস্য মোস্তফা ফারুক ১৯৪২ সালের ২১ মার্চ যশোর জেলার ঝিকরগাছা উপজেলার কৃষ্ণনগর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

মোস্তফা ফারুক পেশাগত জীবন শুরু করেন ১৯৬৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতার মধ্যদিয়ে। ১৯৬৮ সালে তিনি জাপানে পাকিস্তান দূতাবাসে নিয়োগ পান। ১৯৭০ সালে পদোন্নতি পেয়ে দ্বিতীয় সচিব হন।

এরপর ১৯৭২ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে যখন ইন্দোনেশিয়া সরকার বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয়, তখন তৎকালীন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর নির্দেশে তিনি সেখানে বাংলাদেশ দূতাবাস স্থাপন করেন। ১৯৭৩ সালে তিনি দেশে ফিরে আসেন এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পরিচালকের দায়িত্ব পান।

মোস্তফা ফারুক ২০০৮ সালে নবম সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়ে নির্বাচনের মধ্য দিয়ে সক্রিয় রাজনীতিতে প্রবেশ করেন। ২০১২ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর আইসিটি মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পান।

Comments are closed.