কক্সবাজারে ভুমিদস্যু’র হামলায় লাইফ সার্পোটে সহকারী রেঞ্জ কর্মকর্তা ইউসুফ

উচ্ছেদ অভিযানে হামলার শিকার

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

সংকটাপন্ন অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়ে লাইফ সার্পোটে আছেন চট্টগ্রাম উপকূলীয় বন বিভাগের আওতাধীন কক্সবাজারের মহেশখালী রেঞ্জের সহকারী রেঞ্জ কর্মকর্তা ইউসুফ উদ্দীন। এর আগে তিনি স্থানীয় ভূমিদস্যুদের হামলায় গুরুতর আহত হন। তার শরীরে অস্ত্রোপচারের পর সংকটাপন্ন অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ শনিবার হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়েছে।

গত ৩০ জুলাই মহেশখালীর কেরুনতলি করইবুনিয়ায় সংরক্ষিত বনভুমিতে গড়ে তোলা অবৈধ পানের বরজ উচ্ছেদ অভিযানে গিয়ে দখলবাজদের হামলায় গুরুতর আহত হন তিনি সহ বনবিটের আরো কয়েকজন সদস্য।

বনবিভাগ সূত্রে জানা গেছে, উপকূলীয় বনবিভাগের মহেশখালী রেঞ্জের কেরুনতলী বিটের করইবুনিয়া এলাকায় বন বিভাগের সংরক্ষিত এলাকার বনভুমিতে স্থানীয় ভুমিদস্যু চক্র অবৈধভাবে পানের বরজ তৈরি করেন।

৩০ জুলাই ওইসব অবৈধ পানের বরজ উচ্ছেদ করতে যান সহকারী রেঞ্জ কর্মকর্তা ইউসুফ উদ্দীন (৩০), কেরুনতলী বিট কর্মকর্তা আহসানুল কবির (৪৫) এবং বন বিভাগের নৌকা চালক জিয়া রহমান সহ আরো কয়েকজন বন কর্মকর্মী। উচ্ছেদ অভিযানের আগেই খবরটি পান দখলবাজ চক্র।

ভূমিদখলকারীরা চক্র পরিকল্পিত ভাবে অস্ত্র সহকারে সজ্জিত হয়ে অপেক্ষামান থাকে। উচ্ছেদ অভিযান চালানোর উদ্দেশ্যে বনকর্মীরা উক্ত স্থানে পৌছলেই সংঘবদ্ধ সরকারী ভূমি দখলবাজ চক্র অতর্কিতভাবে বনকর্মীদের উপর হামলা চালায়।

দখলবাজদের এলোপাতাড়ি হামলায় আহত সহকারী রেঞ্জ কর্মকর্তা ইউসুফ উদ্দিন, বিট কর্মকর্তা আহসানুল কবির এবং বন বিভাগের নৌকা চালক জিয়া। আহতদের মধ্যে সহকারী রেঞ্জ কর্মকর্তা ইউছুপ উদ্দিনের অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়।

সেথানে ইউছুপের মাথায় অস্ত্রোপচারের পর তাকে মুমুর্ষ অবস্থায় লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়।। গত দু’দিন যাবত তিনি লাইফ সার্পোটে মৃত্যুর প্রহর গুনছেন।

মহেশখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা সুলতানুল আলম চৌধুরী বলেন, বারবার বন কর্মীদের উপর দখলবাজদের হামলায় আমরা হতাশ। কেরুনতলী বিটের করইবুনিয়া এলাকায় বন কর্মীদের উপর হামলার ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে মহেশখালী থানা এজাহার দেওয়া হয়েছ। সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক জড়িত হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনি ব‍্যবস্থা নেয়ার দাবী জানাচ্ছি।

অপরদিকে,সহকর্মী আহত হওয়ার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও হামলাকারীদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানিয়েছেন কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা ও বিশেষ টহল দলের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইমদাদুল হক।
তিনি বলেন, সহকর্মী ইউসুফ উদ্দীন ফরেস্টার সরকারী বনভূমি জবর-দখল মুক্ত করতে গিয়ে ভূমিদস্যুদের হামলায় আহত হয়ে হাসপাতাল বেডে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে আছেন ।
ন্যাক্কারজনক ঘটনার জড়িত ভূমিদস্যুদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

এদিকে, সচেতন মহল মনে করছেন, প্রশাসন সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের যথাযথ ব‍্যবস্থা গ্রহণ না করায় এবং বন বিভাগে লোকবল সংকটের কারণে বার বার এধরনের ন্যাক্কারজনক ঘটনার শিকার হচ্ছে বন কর্মীরা।

Comments are closed.