করোনার বন্ধে ব্যবসায়ীর বাসা থেকে সহায় সম্পদ লুটে নিল সংঘবদ্ধ চোরেরদল!

ইমাম খাইর, কক্সবাজার
কক্সবাজার শহরের বাজারঘাটা মসজিদ রোডের ‘জসিম পুষ্প বিতান’-এর মালিক জসিম উদ্দিনের চাউল বাজার মদিনা মঞ্জিলের ভাড়া বাসায় দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে।
এতে ৭ ভরি স্বর্ণ, নগদ সাড়ে ৭ লাখ টাকাসহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ সরঞ্জাম লুটে নেয় সংঘবদ্ধ চক্র।
বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) সকালে বাসায় গিয়ে এই চিত্র দেখেন জসিম ও তার স্বজনেরা।
তাৎক্ষণিক গণমাধ্যমকে খবরটি জানিয়েছেন জসিমের বড় ভাই শফিউল হক।
ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী জসিম উদ্দিন জানান, করোনা পরিস্থিতিতে দোকানপাট বন্ধ থাকায় তারা গ্রামের বাড়ি সদরের খুরুশকুলের কাউয়ার পাড়ায় চলে যান।
স্বপরিবারে সেখানেই অবস্থান করছেন।
তবে, মাঝেমধ্যে বাসার খোঁজখবর রাখেন। ৫ দিন আগেও বাসায় গিয়েছিলেন। তখন সব ঠিকঠাক ছিল। আজ বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) সকালে বাসায় ঢুকে দেখেন, সব তছনছ। আলমারি ভেঙেচুরে সব নিয়ে গেছে।
তার দাবী- যাওয়ার সময় আলমারিতে কিছু অনেক দামী কাপড়চোটড়, ৭ ভরি স্বর্ণ ও ব্যবসার সাড়ে ৭ লাখ টাকা ছিল। এখন সব শূন্য।
জসিম উদ্দিন খুরুশকুলের কাউয়ার পাড়ার বাসিন্দা মৃত আলী আহম্মদের ছেলে।
ভবন মালিকের নাম মোঃ সায়দুল হক।
চুরির ঘটনার সঙ্গে বাড়ির মালিকপক্ষের ৫ জনের যে কারো যোগসাজশ থাকতে পারে বলে ধারণা করছে স্থানীয়রা।
সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখলে অনেক তথ্য বেরিয়ে আসতে পারে, এমনটি জানিয়েছে চাউল বাজার এলাকার বাসিন্দারা। অন্যান্য ভাড়াটিয়ারাও এমন সন্দেহ করছে।
এদিকে, করোনার বন্ধে শহরের বাসাবাড়িতে প্রতিনিয়ত বেড়ে চলেছে চুরির ঘটনা। অভিযোগ মিলছে প্রায় প্রতিদিন। এতে ভাড়াটিয়াদের মাঝে উদ্বেগ বিরাজ করছে।
কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ খায়রুজ্জামান জানান, লিখিত অভিযোগ পেলে সঠিক তদন্তের মাধ্যমে ঘটনায় জড়িতদের শনাক্তের চেষ্টা করা হবে।

Comments are closed.