সামাজিক সংগঠন মিছিল এর রামু উপজেলা শাখা গঠিত

received_2979823355441170.jpeg

সানজীদুল আলম সজীব, কক্সবাজার

কক্সবাজার জেলার সর্ববৃহৎ সামাজিক সংগঠন ’মিছিল’ এর রামু উপজেলা শাখা গঠন করা হয়েছে। মিছিলের চেয়ারম্যান সাখাওয়াত হোসেন তুর্যের সকলের সম্মতিক্রমে প্রিয়ম বড়ুয়া রক্তিম সভাপতি এবং বিপ্লব বড়ুয়া সাধারন সম্পাদক করে কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়।

মিছিল কক্সবাজার জেলা শাখার আহ্বায়ক সাইফুদ্দিন শাওন, যুগ্ম-আহ্বায়ক অনিশ পাল রন্টি, যুগ্ম-আহ্বায়ক আসিফ-উল-করিম, যুগ্ম-আহ্বায়ক রূপজয় বড়ুয়া রূপু স্বাক্ষরিত একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মুক্তিযুদ্ধ ও মানবিক চেতনায় আগামী ৬ মাসের জন্য এই কমিটির অনুমোদন দেয়া হলো৷ আগামী ১৫ দিনের মধ্যে পূর্নাঙ্গ কমিটি করে জেলার দপ্তর বরাবর জমা দেওয়ার নির্দেশ দেয়া হলো৷ এবং পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে তৃণমূল নেতাদের অগ্রাধিকার দেয়ার নির্দেশ দেয়া হলো৷

২০০৯ সালে প্রতিষ্টিত মিছিল বেশ সুনামের সাথে কাজ করে যাচ্ছে৷ এসো স্বপ্নকে সত্যি করি এক মিছিলে এই স্লোগানকে সামনে নিয়ে মিছিল সংগঠনটি কক্সবাজার জেলায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের মন কেড়েছেন । ছাত্রদের নিয়ে কাজ করা এই সংগঠন নিরক্ষরমুক্ত সমাজ গঠন, মাদক, সন্ত্রাস মুক্ত সমাজ গঠনসহ পরিবেশ সচেতনতা, সামাজিক কু-সংস্থার দুর করণ, পথশিশুদের কল্যান মূলক, নারীদের জীবন যাত্রার মান উন্নয়ন নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। এছাড়া এরা করোনা করলে ভুক্তভোগী মানুষকে বিভিন্নভাবে সাহায্য সহযোগিতার মাধ্যমে কাজ করে যাচ্ছে।

কমিটি গঠন কালে সংগঠনের চেয়ারম্যান সাখাওয়াত হোসেন তুর্য বলেন , মুক্তিযুদ্ধ এবং মানবিক চেতনাকে বুকে ধারণ করে পর্যটন নগরী নিকটবর্তী রামু উপজেলা কমিটি ৬ মাসের জন্য অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। উক্ত কমিটি রামু উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছাত্র ছাত্রীদের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে কাজ করবে। মুলত মিছিল ছাত্র ভিত্তিক সংগঠন। শিক্ষার্থীদের মানবিক ও সামাজিক গুণাবলি বিকাশে কাজ করে যাচ্ছে মিছিল।

এরাই একদিন ছাত্র সমাজের মিছিলের হয়ে ভবিষ্যতে ভাল কিছু কাজ করতে বদ্ধপরিকর। আমরা সকলের সহযোগিতায় সমাজ থেকে মাদক নির্মূলের কাজ করে যাবো। সামাজিক সংগঠন মিছিলের অন্যতম ভূমিকা থাকবে ঝরে পড়া শিক্ষার্থীদের নিয়ে কাজ করার মাধ্যমে সামাজিক কু-সংস্থার দুর করা। বিশেষ করে ’মিছিলে’ জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।