সবার আগে স্থানীয় জনগনের স্বার্থ ও সুবিধা-অসুবিধা দেখা হবে: সেনাপ্রধান

ওয়ান নিউজ: কক্সবাজারের স্থানীয় বাসিন্দাদের সুযোগ-সুবিধা বিবেচনা করেই রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পের চারপাশে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণ জানিয়েছেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ। তিনি বলেন, ‘সবার আগে স্থানীয় জনগনের স্বার্থ ও সুবিধা-অসুবিধা দেখা হবে।’

বৃহস্পতিবার কুতুপালং ও লম্বাশিয়া ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে কর্মকর্তাদের ব্রিফিংকালে একথা বলেন তিনি। এর আগে বেলা ১২টার দিকে জেনারেল আজিজ আহমেদ কুতুপালং ক্যাম্পের পাশে নির্মাণ করা হেলিপ্যাডে অবতরণ করেন।

এসময় তাকে ফুলের তোড়া দিয়ে স্বাগত জানান রোহিঙ্গা শরনার্থী ত্রান ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মাহবুবুল আলম তালুকদার, কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এসএম সরওয়ার কামাল, উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিকারুজ্জামান চৌধুরী ও উখিয়া থানার ওসি আবুল মনসুর।

রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনকালে সেনা প্রধানের সঙ্গে ছিলেন উখিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরীসহ সেনাবাহিনীর কর্মকর্তাসহ প্রসাশনের বিভিন্নস্তরের কর্মকর্তারা।

উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিকারুজ্জামান চৌধুরী জানান, সেনাবাহিনী প্রধান কুতুপালং ক্যাম্পের পাশের হেলিপ্যাডে অবতরণ করেন। সেখান থেকে কুতুপালং ও লম্বাশিয়া ক্যাম্প পরিদর্শন করেন। পরে উখিয়া ডিগ্রী কলেজ সংলগ্ন এলাকায় অবস্থিত আর্মি কো-অর্ডিনেশন সেন্টারে কর্মকর্তাদের উদ্যেশ্যে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ব্রিফ করেন।

জেনারেল আজিজ আহমেদ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কাঁটাতারের বেড়া নির্মানে স্থানীয় জনগণের সুবিধা অসুবিধা বিবেচনা করার জন্য কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেন। এরপর বেলা দেড়টার দিকে তিনি উখিয়া ত্যাগ করেন।

Comments are closed.