বেনাপোল কাস্টমসে নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

ইয়ানূর রহমান : বেনাপোল কাস্টমস হাউসে নিয়োগ পরীক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ ও ব্যবস্থাপনা নিয়ে পরীক্ষার্থীদের মাঝে বিভিন্ন বিতর্ক সৃষ্টি হওয়ায় আগামী ২৯ নভেম্বরের লিখিত পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।

সোমবার (২৫ নভেম্বর) সকালে বেনাপোল কাস্টমস কমিশনার বেলাল হোসেন চৌধুরী পরীক্ষা স্থগিতের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

ডেপুটি কমিশনার ও বিভাগীয় নির্বাচন কমিটির সদস্য সচিব এসএম শামিমুর রহমান স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়েছে, আগামী ২৯ নভেম্বরের কাস্টমস হাউস বেনাপোলের তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণিতে বিভিন্ন পদে অনুষ্ঠিতব্য লিখিত পরীক্ষা কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত মোতাবেক অনিবার্য কারণবশত স্থগিত করা হয়েছে। পরবর্তীতে এ পরীক্ষা পুনরায় অনুষ্ঠানের তারিখ ও সময় নির্ধারণ করে কাস্টমস হাউস বেনাপোলের ওয়েব সাইটে (www.bch.gov.bd) এবং বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক ও ফেসবুকে জানিয়ে দেওয়া হবে।

জানা যায়, কাস্টমস হাউসের বিভিন্ন পদে ৯৪ জনকে নিয়োগের জন্য তিন বছর আগে দরখাস্ত আহ্বান করা হয়। এতে আবেদন পড়ে প্রায় ৬৪ হাজার। গত ২৩ নভেম্বর শারীরিক পরীক্ষার দিন ছিল। এদিন বেনাপোল কাস্টমসে পরীক্ষা দেওয়ার জন্য উপস্থিত হন ২৭ হাজার ৯৬ জন পরীক্ষার্থী। কিন্তু পরীক্ষার জন্য কাস্টমস হাউসে পর্যাপ্ত জায়গা ও জনবলের অভাবে বেকায়দায় পড়েন পরীক্ষার্থীরা। কাস্টমসের বিরুদ্ধে নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ তোলেন পরীক্ষার্থীরা।

বিষয়টি নিয়ে বেনাপোল কাস্টমস হাউসের অতিরিক্ত কমিশনার ও নিয়োগ প্রক্রিয়া কমিটির সভাপতি ড. নেয়ামুল ইসলামের সঙ্গে সাংবাদিকরা কথা বলতে চাইলে তিনি যুক্তিসংগত কোনো মন্তব্য না করে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন। বলেন, ‘সাংবাদিক তো ডাকা হয়নি।’ এ নিয়ে দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে নিউজ প্রকাশিত হয়। পরে বিষয়টি নিয়ে তদন্ত হয়।

উল্লেখ্য, বেনাপোল কাস্টমস হাউজ সুত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার (২২ নভেম্বর) ও শনিবার (২৩ নভেম্বর) কাস্টমস হাউজ বেনাপোলে শারীরিক পরীক্ষায় উপস্থিত ছিলেন, ৭৯৬২ জন পরীক্ষার্থী। আর তার মধ্যে উত্তীর্ণ হয় ৬৭৩৫ জন পরীক্ষার্থী। অনুত্তীর্ণ ১২২৭

পরীক্ষার্থী। কাস্টমস হাউজ বেনাপোলে সিপাই পদের সংখ্যা ৫৬ টি। যায় বিপরীতে মোট আবেদন জমা পড়ে ৩২৯৫২ টি। আর প্রবেশপত্র ইস্যু করা হয় ২৭০৯৭ টি।

Comments are closed.