রামুর পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেনের নেতৃত্বে জেলা প্রশাসন

DC-Cox-7.jpg

এস এম হুমায়ুন কবির, কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি।।

কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ শাজাহান আলির নেতৃত্বে জেলা প্রশাসনের পদস্থ কর্মকর্তাগণ রামু উপজেলার পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন।মন্দিরগুলোতে পরিদর্শন টিম গেলে মন্দিরের পুরোহিত ও হিন্দু নেতারা জেলা প্রশাসকের টিম কে স্বাগত জানান।

গতকাল সোমবার (৭ অক্টোবর) সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শারদীয় দুর্গোৎসবের নবমী দিনে তাঁরা ধর্মীয় নেতাদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন এবং সেখানে কিছুক্ষণ সময় কাটান।

এরপর একে একে তারা আরো কয়েকটি পূজামন্ডব পরিদর্শন করেন।

তেমুহনী শতবর্ষী বটমূল পূজা মন্ডপ পরিদর্শনে যান । তাঁরা সেখানে মন্দিরে পৌঁছার পর সেখানকার ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ তাঁদেরকে শুভেচ্ছা জানান। তাঁরাও হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের দুর্গাপূজার শুভেচ্ছা জানান এবং তাদের সার্বিক মঙ্গল কামনা করেন। বেশ কিছু সময় ভক্ত-পূজারিদের সঙ্গে নিয়ে পূজার কার্যক্রম পরিদর্শন করেন।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান মোল্লা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোঃ আমিন আল পারভেজ, কক্সবাজার পুলিশ সুপার মোঃ মাসুদ হোসেন, রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণয় চাকমা,রামু উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সোহেল সরওয়ার কাজল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোঃ আদিবুল ইসলাম, সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জয়নাল আবেদীন, সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তানভীর আহমেদ ও সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুসা নাসের চৌধুরী, রামু থানার ওসি মোঃ আবুল খায়ের, রামু থানার ওসি তদন্ত এসএম মিজানুর রহমান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফসানা জেসমিন পপি, রামু কেন্দ্রীয় কালী মন্দিরের প্রধান পুরোহিত সজল ব্রাহ্মণ চৌধুরী, পুরোহিত সুবীর ব্রাহ্মণ চৌধুরী বাদল, রামু সার্বজনীন কালী মন্দির পরিচালনা কমিটির রতন মল্লিক, সাধারণ সম্পাদক চন্দন দাশ গুপ্ত, রামু উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের আহবায়ক তপন মল্লিক, রামু দূর্গা প্রতিমা বিসর্জন কমিটির সভাপতি ডা. আশুতোষ চক্রবর্তী মন্টু, হিন্দু নেতা সুশান্ত পাল বাচ্চু, রতন দেওয়ানর্জী, দিলীপ দেওয়ানর্জী, উত্তম দেওয়ানর্জী জনি, রামু উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক স্বদীপ শর্মা, রামু উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ জুনাঈদ বিপ্লব, রামু সার্বজনীন কালী মন্দির পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি রূপন ধর, সাধারণ সম্পাদক নয়ন শর্মা, ও রামু তেমুহনী শত বর্ষী বটমূল পূজা উদযাপন পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা প্রিয়তোষ চক্রবর্তী, রামু দূর্গা প্রতিমা বিসর্জন কমিটির সভাপতি ডা. আশুতোষ চক্রবর্তী মন্টু, তেমুহনী শত বর্ষী বটমূল পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুমন চক্রবর্তী পাইলট, সাধারন সম্পাদক মিঠুন দত্ত ও হিন্দু নেতা রাজিব দে প্রমুখ।
পরিদর্শনকালে জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন ও পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন বলেন, পাঁচদিনব্যাপী শারদীয় দুর্গোৎসব শান্তিপূর্ণ ভাবে উদযাপনের সুবিধার্থে প্রশাসনিকভাবে কঠোর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে।