জম্ম নিবন্ধন নিয়ে লুকোচুরি, ডিজিটাল প্রতারণার মাধ্যমে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ।।

birth-certificate..jpg

এস এম হুমায়ুন কবির
———————————-

নতুন ভোটার হওয়ার জন্য জন্ম নিবন্ধন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।জম্ম নিবন্ধন এনালগ হলে নাকি ভোটার হওয়া যাবে না। তাই গর্জনিয়া – কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন সহ রামু উপজেলা জুডে নতুন ভোটার হতে আগ্রহীরা ইউনিয়ন পরিষদ তথ্য সেবা কেন্দ্রে ডিজিটাল জম্ম নিবন্ধন করতে উদ্দ্যোক্তাদের শরণাপন্ন হচ্ছেন এই সুযোগে এনালগ জম্মনিবন্ধন কে ডিজিটালে রূপান্তর করার জন্য ৪ হাজার থেকে দশ হাজার টাকা পর্যন্ত হাতিয়ে নেওয়া/ দাবী করার অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে সংশ্লিষ্ট নতুন ভোটার হতে আগ্রহীদের কাছ থেকে।
এদিকে কক্সবাজার জেলা নির্বাচন অফিস সূত্র জানিয়েছে, তারা কক্সবাজার জেলায় জম্মনিবন্ধন কার্যক্রম সম্পূর্ণভাবে বন্ধ রেখেছে।এই সময়ে একশ্রেণির অসাধু উদ্যোক্তার যোগসাজশে হ্যাকার গ্রুপ নির্বাচন কমিশনের জম্মনিবন্ধন আইডি হ্যাক করে ডিজিটাল জম্মনিবন্ধন কার্ড করার নামে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। অথচ ডিজিটাল জম্মনিবন্ধন কার্ডে নির্বাচন কমিশনের যে কোড থাকে তা এখন ডিজিটাল করা জম্মনিবন্ধন কার্ডের কোড নাম্বারের সাথে মিল নেই।
এ ধরনের ডিজিটাল জম্মনিবন্ধন কার্ড জেলা নির্বাচন অফিসের নজরে পড়েছে। নির্বাচন অফিস নতুন করা ভেজাল জম্মনিবন্ধনের মাধ্যমে নতুন ভোটার প্রার্থীদের ভোটার আবেদন বাতিল করে দিচ্ছে। তাই এনালগ জম্মনিবন্ধন কে ডিজিটাল করার নাম দিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেওয়া চক্র শনাক্ত করতে মাঠে রয়েছে দায়িত্বে নিয়োজিত রাস্ট্রীয় গোয়েন্দা সংস্হার প্রতিনিধিরা।