অভিনব কায়দায় কারাগারে ইয়াবা পাচারকালে মাদক কারবারী নুরু গ্রেপ্তার

Noru.jpg

জে.জাহেদ. চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:
কারাগার হতে চট্টগ্রাম আদালতে হাজিরা দিতে আসা আসামি ভাইয়ের হাতে কৌশলে ইয়াবা দিতে এসে মো. নুরু (৪২) নামে একাধিক মামলার এক আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
১৪ জুলাই দুপুর ২.৪৫ মিনিটের সময় কোতোয়ালী থানাধীন শহীদ মিনার এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করেন এসআই মো. ইদ্রিস আলী ও তার সঙ্গীয় ফোর্স।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) মোহাম্মদ মুহসীন।
গ্রেফতারকৃত আসামীর পুরা নাম মো. নুরুল ইসলাম প্রকাশ নুরু (৪২), পিতা-মৃত জানে আলম, গ্রাম-ছোটপুল, মুন্সি মিয়ার বাড়ি প্রঃ দফাদার বাড়ি, হালিশহর,চট্টগ্রাম।
তল্লাশীকালে আসামির কাছ থেকে ২০ (বিশ) পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে পুলিশ। যার আনুমানিক মূল্য ৬ হাজার টাকা বলে পুলিশ জানায়। জিজ্ঞাসাবাদে সে জানায় গত ২ দিন আগে তিনি কারাগার হতে জামিনে বের হয়েছেন।
পুুলিশের কাছে সে তথ্য দেন, জনৈক শাহজাহান নামে হালিশহরের এক লোক হতে ইয়াবা গুলো ক্রয় করে এবং জেল হাজতে থাকা তার বড় ভাই হাজতী মো. রেজাউল করিম প্রকাশ ডাইল করিমের কাছে ইয়াবাগুলো পৌঁছাতে আদালতের দিকে আসেন। কারণ ১৪ জুলাই তার ভাইকে মামলার হাজিরা দিতে আদালতে আনা হবে। আর এ সুযোগে সে ইয়াবাগুলো কারাগারে পাচার করবে।
পুলিশ জানায়, ধৃত আসামী মো. নুরুল ইসলামের বিরুদ্ধে নগরীর হালিশহর থানার এফ আই আর নং-২৬, তারিখ-২৯ সেপ্টে, ২০১৮; ধারা-১৫(৩)/২৫-উ ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইন, হালিশহর থানার এফ আই আর নং-৮,তারিখ-০৮ জুলাই, ২০১৭, ধারা-১৯(১) এর ৩(খ)/১৯(১) এর ৯(খ) ১৯৯০ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, হালিশহর থানার এফ আই আর নং-১৪,তারিখ-২৮ সেপ্টে, ২০১০; ধারা-৩৭৯/৫০৬ দঃ বিঃ, হালিশহর থানার এফ আই আর নং-৯, তারিখ-১৭ অক্টে, ২০১৮; ধারা-১৯(১) এর ৯(ক)/২৫ ১৯৯০ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, হালিশহর থানার এফ আই আর নং-৩, তারিখ-০৯ অক্টে, ২০১৮; ধারা-১৫(৩)/২৫-উ ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইন, ডবলমুরিং মডেল থানার এফ আই আর নং-৯, তারিখ-০৮ সেপ্টে, ২০১৫; ধারা-১৯(১) এর ৯(খ) ১৯৯০ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, হালিশহর থানার এফ আই আর নং-১৭, তারিখ-১৪ আগষ্ট, ২০১৪; ধারা-১৯(১) এর ৯(খ)/৩(খ) ১৯৯০ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের একাধিক মামলা রয়েছে।
কোতোয়ালী ওসি মোহাম্মদ মুহসীন জানান, ধৃত আসামী সহ তিন জনের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০১৮ এর ৩৬ (১) এর টেবিলের ১০ (ক)/৪১ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।