হার না মানার গল্প ‘ন ডরাই’, অক্টোবরে মুক্তি

No-Dorai.jpg

‘ন ডরাই’ ছবির পোস্টারে সুনেরাহ

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ চলচ্চিত্র প্রযোজনায় এসেছে স্টার সিনেপ্লেক্স। সার্ফিং নিয়ে নির্মিত হয়েছে তাদের প্রথম প্রযোজিত ছবি। বৃহত্তর চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষায় সিনেমাটির নাম রাখা হয়েছে ‘ন ডরাই’। মানে ভয় পাই না। তানিম রহমান অংশু পরিচালনা করেছেন ছবিটি। যিনি  এর আগে ‘স্বপ্নের ঘর’ নির্মাণ করেছেন। ‘আদি’ নামে তার আরও একটি ছবি নির্মানাধীন রয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর বসুন্ধরা সিটিতে অবস্থিত স্টার সিনেপ্লেক্সে ‘ন ডরাই’র পোস্টার উন্মোচন এবং মিট দ্য প্রেস অনুষ্টিত হয়। সেখানেই জানানো হয় ছবিটি অক্টোবরে মুক্তি দেয়া হবে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্টার সিনেপ্লেক্সের চেয়ারম্যান মাহবুব রহমান, পরিচালক তানিম রহমান অংশু, অভিনেতা শরিফুল রাজ, সুনেরা বিনতে কামাল’সহ সিনেমা সংশ্লিষ্ট অনেকে।

‘ন ডরাই’র  চিত্রনাট্য লিখেছেন দেবের ‘বুনোহাঁস’ ও বলিউডের ‘পিংক’র চিত্রনাট্যকার শ্যামল সেনগুপ্ত।

একজন নারী সার্ফারের জীবন থেকে উৎসাহিত হয়ে এ ছবির গল্প গড়ে উঠেছে। একটি সত্য ঘটনা অবলম্বনেই এর গল্প। নারীর এগিয়ে যাওয়ার একটা বার্তাও থাকবে এতে।

নির্মাতা জানান, সিনেমার প্রায় নব্বই শতাংশ দৃশ্যধারণ করেছি কক্সবাজারে। এতে চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষার ব্যবহার করেছি বেশি। যেহেতু গল্পটা ঐ অঞ্চলের। তবে তা সবাই যেন বুঝতে পারে, সেভাবেই ব্যবহার করা হয়েছে।’

সিনেমাটি প্রসঙ্গে স্টার সিনেপ্লেক্সের চেয়ারম্যান মাহবুব রহমান বলেন, ‘ন ডরাই’ নারী ক্ষমতায়ন নিয়ে কথা বলবে। সার্ফিং করার মতো চ্যালেঞ্জিং কাজটি একজন নারী হয়েও কিভাবে করা হয়েছে, সিনেমাটিতে তাই দেখানো হবে। আমাদের কাজ একেবারেই শেষ। এখন সেন্সরে সিনেমাটি জমা দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি। আর ইচ্ছে আছে আগামী অক্টোবরে ‘ন ডরাই’ মুক্তি দেওয়ার।

ন ডরাইয়ের মাধ্যমে প্রথমবার বড় পর্দায় অভিষেক হচ্ছে সুনেরাহ বিনতে কামালের। ছবিটি নিয়ে তার দারুন উচ্ছ্বাস। সুনেরাহ বলেন, আমার প্রথম কাজ। এতে  ছোটবেলা থেকে আমার অভিনয়ের শখ ছিলো। এবার সেটা প্রামাণ পেলো। সিনেমাটি করতে গিয়ে নাছিমার গল্প আমাকে খুব অনুপ্রাণিত করেছে। আমাকে চট্টগ্রামের ভাষা শিখতে হয়েছে। শুটিংয়ে অনেক পরিশ্রম করতে হয়েয়ে। আমার বিশ্বাস দর্শকদের ছবিটি ভালো লাগবে।