কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার-০৯

IMG_20190613_161809.jpg

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ কক্সবাজার সদর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন মামলায় অভিযুক্ত ০৯ জনকে আটক করেছে। গত ১৮/০৬/২০১৯ ইং তারিখ হতে সকাল হতে ১৮/০৬/২০১৯ ইং তারিখ সকাল পর্যন্ত অফিসার ইনচার্জ জনাব মোঃ ফরিদ উদ্দিন খন্দকার (পিপিএম) এর নেতৃত্বে পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশনস্ এ্যান্ড কমিউনিটি পুলিশিং), পুলিশ পরিদর্শক (ইন্টিলিজেন্স) মোহাম্মদ আরিফ ইকবাল, পুলিশ পরিদর্শক আসাদুজ্জামান এসআই প্রদীব চন্দ্র ,এসআই আনছারুল হকা,এসআই মোহাম্মদ এমরান হোসেন এসআই দেলোয়ার হোসেন এসআই সুজন এসআই বশর এসআই এ্যানি রায়,সঙ্গীয় ফোর্স এবং ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান খান সহ কক্সবাজার সদর মডেল থানা এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ০৯ জন আসামীকে গ্রেফতার করেন কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশ।
গ্রেফতারকৃত আসামীরা হলেন
১।আব্দুর রশিদ,পিতা-কবির আহম্মদ,সাং-সমিতি পাড়া, ০১ নং ওয়ার্ড ,থানা ও জেলা-কক্সবাজার।
২।আবছার,পিতা-মৃত আনু মিয়া সওদাগর,সাং-খোদাই বাড়ী ইসলামাবাদ,থানা ও জেলা-কক্সবাজার।
৩।শাহরিয়ার শাহিন প্রঃ ফাহিম,পিতা-নুর-আলম প্রঃ শাহআলম,নতুন বাহারছড়া,মোজাম্মেল চেয়ারম্যান এর বাড়ীর উত্তর পাশের্^,০৩ নং ওয়ার্ড,থানা ও জেলা-কক্সবাজার।
৪।মোঃ আরিফ উল্লাহ প্রঃ আরিফ,পিতা-অলিউল্লাহ,সাং-উত্তর পেচাঁরঘোনা,আব্দুল শুক্কুরের বাড়ী, ০৩ নং ওয়ার্ড,খুরুশকুল, থানা ও জেলা-কক্সবাজার।
৫।সাইফুল ইসলাম,পিতা-মৃত ছৈয়দ নুর, সাং-নাইক্ষ্যংদিয়া,বড় মসজিদের দক্ষিন পাশের্^,০৫ নং ওয়ার্ড,পোকখালী ইউপি, থানা ও জেলা-কক্সবাজার।
৬।ওসমান হায়দার আরমান,পিতা-নুরুল আমিন,সাং-বালুচরা,০৫ নং জুলহাজারা ইউপি,থানা-চকরিয়া,জেলা-কক্সবাজার।
৭।মোঃ শামীম,পিতা-মোঃ আমিন,সাং-মধ্যম কুতুবদিয়া পাড়া, ০১ নং ওয়ার্ড,থানা ও জেলা-কক্সবাজার।
৮।মোঃ বায়তুল্লাহ,পিতা-আব্দুস শুক্কুর,সাং-হায়দার পাড়া,চৌফলদন্ডী,বর্তমানে সমিতি পাড়া, থানা ও জেলা-কক্সবাজার।
৯।মোঃ ফারুক,পিতা-শহীদুল হক,সাং-টেকপাড়া মধ্যম, থানা ও জেলা-কক্সবাজার।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব মোঃ ফরিদ উদ্দিন খন্দকার (পিপিএম) তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন বিভিন্ন মামলায় গ্রেফতারের পর আদালতের মাধ্যমে তাহাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এলাকার আম জনতা ও পর্যটকদের সার্বিক নিরাপত্তার নিশ্চিতের লক্ষ্যে মামলায় অভিযুক্ত ও চিহিৃত অপরাধীদের বিরুদ্ধে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে