দৃষ্টিহীনদের জন্য ডিজিটাল কোরআন

Quran.png

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ দৈনন্দিন জীবনে নানা সমস্যার মধ্য দিয়ে যেতে হয় দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীদের। এমনকি ধর্ম চর্চা কিংবা ইবাদত-বন্দেগি তারা ঠিকমতো পালন করতে পারেন না। দৃষ্টি শক্তি না থাকায় তারা কোরআনে কারিমও তেলাওয়াত করতে পারেন না। কিন্তু প্রযুক্তির সহায়তায় সৌদি উদ্ভাবক মিশাল আল হারাসানি (Meshal Al-Harasani) একটি ডিজিটাল কোরআন তৈরির কাজ করছেন। যা দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীরা অনায়াসে পড়তে পারবেন।

গবেষক মিশালের বয়স যখন ১৩, তখন থেকেই তিনি বিভিন্ন বিষয়ে নিয়ে গবেষণা করতে থাকেন, এসব বিষয়ে তার উৎসাহও ব্যাপক। এমন উৎসাহ থেকেই তিনি ডিজিটাল কোরআন তৈরির কাজ করছেন।

বাদশাহ আবদুল আজিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপদেষ্টা ৩০ বছর বয়সী গবেষক মিশালের সর্বশেষ আবিষ্কার হতে যাচ্ছে এই ডিজিটাল কোরআন।

বিভিন্ন সামাজিক ও মানবিক সহায়তামূলক বিষয় উদ্ভাবন করেছেন তিনি। এর সংখ্যা পঞ্চাশেরও বেশি।

এমন উদ্ভাবন প্রসঙ্গে সৌদি গণমাধ্যম আরব নিউজকে মিশাল বলেন, এটি ২৮টি ক্যারেক্টারের একটি ইলেকট্রনিক বোর্ড। প্রতিটি ক্যারেক্টারে ছয়টি ব্রেইল বর্ণ থাকবে। বোর্ডের পাতায় ২৮টি লাইন থাকবে।

এটা দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীরা সহজেই পড়তে পারবেন এবং একটি পাতা থেকে আরেকটি পাতায় সহজেই যেতে পারবেন তারা। পুরো কোরআন ওই বোর্ডের ভেতরে লেখা থাকবে।

প্রতিবন্ধীদের কোরআন শেখানোর সেমিনারে অংশ নিতে এই পবিত্র গ্রন্থটি ছাপতে গিয়েছিলেন বাদশাহ ফাহাদ কোরআন কমপ্লেক্সে। এর পরেই ডিজিটাল মাসহাফ তৈরির বিষয়টি তার মাথায় আসে।

তিনি বলেন, প্রতিবন্ধীদের কোরআন পড়া সহজ করতে আমি গবেষণা করেছি। বিশেষ করে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীদের জন্য বিষয়টি সহজ করে দিতে চাই।

এই গবেষকের ডিজিটাল মাসহাফ তৈরির কাজ এখনও শেষ হয়নি। আশা করা হচ্ছে, চলতি বছরের শেষ নাগাদ তিনি এই কাজ শেষ করতে পারবেন।