যশোরের শার্শায় এক মাদ্রাসা ছাত্রের অর্ধ গলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ

pic-02.06-1.jpg

ইয়ানূর রহমান : যশোরের শার্শা উপজেলার গোগা গাজী পাড়া হাফিজিয়া মাদ্রাসার ওস্তাদ হাফিজুরের নিজ বাড়ির ঘরের খাটের নিচে থেকে শাহ-পরান (১১) নামের এক মাদ্রাসা ছাত্রের অর্ধ গলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রবিবার বিকাল সাড়ে ৫টার সময় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদের ফোন পেয়ে ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করেন নাভারন সার্কেল এএস পি জুয়েল
আহমেদ ও শার্শা থানার অফিসার ইনচার্জ এম মসিউর রহমান। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, হাফেজ হাফিজুর রহমান প্রায় এভাবে ছোট ছোট মাদ্রাসার বাচ্চাদের নিয়ে আসতে দেখা যেতো। এই ছেলেটিকে নিয়ে হাফেজ হাফিজুর কয়েকদিন আগে নিজ বাড়িতে বেড়াতে আসে। তার কয়েক দিন পর হাফিজুর রহমান আবার তার কর্মস্থলে ফিরে যায়।

এ বিষয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমাকে মহিলা মেম্বর ফোন দিয়ে বলে, হাফিজুরের বাড়ি থেকে
প্রচন্ড দুর্গন্ধ আসছে এবং তার খাটের নিচে একটি মৃত ব্যক্তির হাত দেখা যাচ্ছে। তারপর আমি পুলিশের কাছে ফোন দিয়ে তাদের কে অবগত করি।

এ বিষয়ে শার্শা থানার অফিসার ইনচার্জ এম মসিউর রহমান এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা এখানে চেয়ারম্যানের ফোন পেয়ে
ঘটনাস্থলে পরিদর্শনে আসি এখন পর্যন্ত যা জানতে পেরেছি এই কিশোরের নাম শাহ পরান বাড়ি শার্শা কাগজপুকুর তার পরিবারের অভিযোগ পরান হাফিজুরের সাথে কয়েকদিন আগে বাড়ি থেকে বের হয়। তার পর থেকে তাকে আর পাওয়া যাচ্ছে না। তিনি আরো বলেন, এই ঘটনাটি কি ভাবে ঘটছে তা নিয়ে আমাদের তদন্ত কার্যক্রম চলছে। সঠিক তদন্ত ছাড়া এখন কিছুই বলা যাবে না।