খরুলিয়ার বহুল আলোচিত জমি বিরোধ মামলার আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জমিতে কাজ করছিল সাজেদা, সে কাজ বন্ধ করে দিল স্থানীয় প্রশাসন

v.jpg

খরুলিয়ার আলোচিত জমি বিরোধ আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য জমিতে কাজ বন্ধ করে দিল স্থানীয় প্রশাসন
নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে খরুলিয়ার সাজেদা বেগম ও তার ছেলে মেয়েদের ব্যবহার করে প্রবাসি শফিকের জমি দখলের চেষ্টাকরলে কাজ বন্ধ করে দেন মুহাম্মদ শাহরিয়ার মুক্তার সহকারী কমিশনার (ভূমি) কক্সবাজার । জানা যায় শুক্রবার সকালে ( ১০মে) সাজেদা বেগম তার ছেলে আসাব উদ্দিন ও জোয়ান মেয়েদের ব্যবহার করে আদালতের নিষেধ অমান্য করে কাজ করছিল। এলাকাবাসী বিষয়টি ভুমি অফিসে জানালে ভুমি অফিসের কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহরিয়ার মুক্তার সহকারি (ভুমি) ঘটনা স্থল পরিদর্শনে আসেনএবং এই নিয়ে আবারো এলাকায় বড় ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে বলে মনে করে কক্সবাজার ভুমি কর্মকর্তা নিজে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের কাজ বন্ধ করে দেন । তখন সাজেদা বেগম তার জোয়ান মেয়েদের কে লেলিয়ে দিয়ে ভুমি কর্মকর্তা এবং আমর্স আনছারদের কে খুব অশ্লীল ভাষায় গালি গালাজকরে বলে স্থানীযসুত্রে জানা যায়। এবং তখন ভুমি কর্মকর্তা ঘটনা স্থল ত্যাগ করেন বলে জানান এলাকাবাসি। পরে স্থানীয় চেয়ানম্যান টিপু সুলতানের মাধ্যমে কাজ বন্ধ করার আদেশ দেন। সাজেদা বেগম তার জোয়ান মেয়েদের কে লেলিয়ে দিয়ে প্রবাসী শফিকের ভাড়াটিয়া কে ঘর থেকে বের হতে দিচ্ছে নাবলে জানান।এ নিয়ে প্রবাসী শফিকের ভাই রহিম বলেন আমরা জমিতে কাজ করছি না আদালতের নিষেধ আছে বলে কিন্তুু সাজেদা বেগম ও তার ছেলে মেয়েদের নিয়ে আদালতের ১৪৪ ধারা অমান্য করে জায়গায় কাজ করছে জেনে কক্সবাজার ভুমি কর্মকর্তা গঠনাস্থলে গিয়ে কাজ বন্ধ করতে বললে উল্টো প্রশাসনের লোকদের তাড়া করে বসে । প্রশাসনের প্রতি দৃষ্টিকামনা করেছেন  এলাকাবাসী।