বিশ্বম্ভরপুর সরলা হিজড়ার বিরুদ্ধে লিংগ কেটে সমকামী বানাতে গিয়ে এক হিজরার অকালমৃত্যু আরো ৩ জনের বেহাল অবস্থায।

Hizra.jpg

রোকন মিয়া তাহিরপুর, সুনামগঞ্জ ::

বিশ্বম্ভরপুরে লিংগ কেটে  এক হিজড়ার মৃত্যু। জামালগঞ্জ উপজেলার ওঠামারা গ্রামের গ্রাম   সরকার নামক এক ব্যক্তির   ছেলে মোবারক সে জীবিকার তাগিদে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার সরলা হিজড়ার কাছে থেকে বিশ্বম্ভরপুরের  বিভিন্ন স্থান থেকে চাঁদা উত্তোলন  করত।সে বিশ্বম্ভরপুর নতুন পাড়ার  সরলা হিজড়ার সাথে বহুদিন যাবত চলাফেরা করছিল।

প্রকৃত  সমকামী হতে হলে লিংগ কাটতে হবে বলে  বিশ্বম্ভরপুরে সরলা হিজড়া  নাগিনী সহ ৪ হিজড়াদের লিংক কাটায়।সে ছাড়া আরো ৩ জন হচ্ছে উত্বল (শ্রাবন্তি)ধর্মপাশা,মহন (সুনালী)ধর্মপাশা,বাশসাগঞ্জ,আক্তার (জামালগঞ্জ)মাকরখলা।

তথ্য সূত্রে জানাযায়, লিংগ  কাটার প্রায় ১২১৩ দিন পর   এক হিজড়া মারা যায়। তাকে বিশ্বম্ভরপুর সরলা হিজড়ার বাসা থেকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাওয়ার সময় মারা যায় বলে হিজড়ার জানায়।

তারা কোন জায়গায় লিংগ কর্তনের কাজটি করেছে তা জানা যায়নি ।
এ বিষয়ে সরলা হিজড়ার মন্তব্য  নিতে তার বাসায় গেলে কাউকে পাাাওয়া
যায়নি।
এবিষয়ে সুনামগঞ্জ জেলা হিজড়া কল্যাণ সমিতির সভাপতি সুমনা আক্তার  ( কালা মিয়া ) জানান,অনেক দিন যাবৎ সরলা এসব কাজ করে আসছে।তার বিরুদ্ধে আমরা আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করব।কালকে বিশ্বম্ভরপুর থানায় গিয়ে অভিযোগ ও মানববন্ধন করব।

এবিষয়ে বিশ্বম্ভরপুর থানার ওসি কাছে  জানতে চাইলে তিনি দায়সারা ভাবে জানান, বিষয়টি আমার নলেজ নেই ।