যুব মহিলা লীগের নেত্রী রোজিনা আক্তারের উপর সন্ত্রাসী হামলা

rujina.jpg

নিজস্ব প্রতিবেদক
কক্সবাজার শহরের সমিতিপাড়ার যুব মহিলা লীগের নেত্রী রোজিনা আক্তারের উপর হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা। ওই হামলায় গুরুতর আহত হয়েছেন তিনি। বুধবার (৩ এপ্রিল) রাত ১০ টার দিকে শহরের পূর্ব কুতুবদিয়া পাড়ার হারুন সওদাগরের উত্তর দিকে একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী অতর্কিত হামলে পড়ে রোজিনা আক্তারের উপর। ওইসময় ধারালো ছুরির আঘাতে গুরতর আহত হন তিনি। এসময় রক্তাক্ত অবস্থায় স্থানীয়রা উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক অবস্থা আশংকাজনক দেখে তাকে ভর্তি দিয়েছেন।
আহত রোজিনা আক্তারের স্বামী ইলিয়াস বলেন, আমার স্ত্রী একটি মেহেদী অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে অন্ধকারে পূর্ব শক্রতাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় ইয়াবা ব্যবসায়ী রফিক ও মোঃ আবছারের লোকজন আমার স্ত্রীর উপর হামলা করেছে। তাদের বিরুদ্ধে আগে মামলা করায় ক্ষুদ্ধ হয়ে এই হামলা করেছে তারা।
ইলিয়াছ জানান, তার স্ত্রীর একটি মামলায় হোসেন বৈদ্য নামে একব্যক্তি জেলা কারাগারে রয়েছেন। ওই মামলাকে কেন্দ্র করে কিছু দিন আগে তার শিশু কন্যা সাদিয়া সুলতানা নুরী( ৯) কে গায়েব করে বেধড়ক মারধর করেছে সন্ত্রাসীরা। তারই ধারাবাহিকতায় ওই মামলার আসামী রফিক ও মোঃ আবছারের সন্ত্রাসী বাহিনী যুব মহিলা লীগের নেত্রী ও মানবাধিকার কর্মী রোজিনা আক্তারের উপর উপর্যপুরি ছুরিকাঘাত করেছে।
সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়া রোজিনা আক্তার বলেন, আমার উপর পতিশোধ নিতে দীর্ঘদিন ধরে উঠেপড়ে লেগেছে আমার মামলার আসামীরা। তারা হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়ে এসে প্রতিনিয়ত আমাকে ও আমার স্বামীকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় একটি মেহেদী অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে রাতের অন্ধকারে অবস্থান করে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ছুরি চালিয়েছে এই সন্ত্রাসীরা।
রোজিনা জানান, হামলার সময় প্রত্যেকের হাতে অস্ত্র, ধারালো ছুরি, কিরিচ ও লোহার রড ছিলো। হামলাকারী রফিক ও মোঃ আবছারসহ তাদের প্রত্যেকজনকে চিনতে পেরেছেন তিনি।
তিনি আশংকা করছেন, যে কোন মুহুর্তে তার স্বামী ও পরিবারের অন্যন্য লোকজনদের উপর আবারো হামলা করবেন তারা। একের পর এক শারীরিক ও মানষিক নির্যাতন করে যাচ্ছেন এই সন্ত্রাসীরা। প্রতিকার চেয়ে তাদের বিরুদ্ধে মামলাও করা হয়েছে কক্সবাজার সদর মডেল থানায়। উচ্চ আদালত থেকে জামিনে এসে প্রকাশ্যে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন রোজিনা আক্তার