এফ আর টাওয়ারে আগুন নিয়ন্ত্রণে, নিহত ৭

FR-Tower.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ রাজধানীর বনানীর কামাল আতাতুর্ক অ্যাভিনিউয়ের বহুতল ভবনে লাগা আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। ফায়ার সার্ভিসের ২২টি ইউনিট দীর্ঘক্ষণ কাজ করার পর বিকেল ৫টা ৪৫ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। ফলে ৫ ঘণ্টা পর আগুন নিয়ন্ত্রণে এলো।

এর আগে দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটে আগুন লাগার ঘটনা ঘটে। ভবনটিতে দ্য ওয়েভ গ্রুপ, হেরিটেজ এয়ার এক্সপ্রেস, আমরা টেকনোলজিস লিমিটেড ছাড়াও অর্ধশতাধিক অফিস রয়েছে।

আগুন নিয়ন্ত্রণের বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন ফায়ার সার্ভিস সদরের ডিউটি অফিসার মিজানুর রহমান। তিনি বলেন, দীর্ঘ প্রচেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। তবে নির্বাপণ শতভাগ হয়নি। ধোঁয়া আছে। পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসতে সময় লাগবে।

রাজধানীর বনানীর কামাল আতাতুর্ক অ্যাভিনিউয়ের বহুতল ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। ইউনাইটেড হাসপাতালে তিনজন, ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে একজন ও কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে একজন মারা গেছেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ বিকেল সোয়া ৫টার দিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ঘটনাস্থলে তিনজন নিহত হয়েছেন। তাদের ইউনাইটেড হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। এছাড়া কুর্মিটোলা হাসপাতালে নেয়ার পথে একজন এবং ঢামেকে আরও একজন মারা যান।

জানা গেছে, ঢামেকে নিহত ব্যক্তির নাম আব্দুল্লাহ আল ফারুক এবং কুর্মিটোলায় নিহতের নাম নিরস ভিগ্নে রাজা (৪০)। কুর্মিটোলায় নিহত রাজা শ্রীলঙ্কার নাগরিক এবং স্কেন ওয়েল লজিস্টিকসের ম্যানেজার পদে কর্মরত ছিলেন। তবে ইউনাইটেড হাসপাতালে নিহত তিনজনের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

ঢামেক ক্যাম্প পুলিশের ইনচার্জ এসআই বাচ্চু জানান, বিকেল ৪টা ৩৮ মিনিটের দিকে আব্দুল্লাহ আল ফারুক মারা যান। তাকে অজ্ঞান অবস্থায় ঢামেকে আনা হয়। হাসপাতালে আনার পরও তার জ্ঞান ফেরেনি।

রাজধানীর বনানীর বহুতল ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় আটকা পড়াদের উদ্ধারে কাজ করছে সেনাবাহিনী ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। আটকে পড়াদের উদ্ধারে দুটি স্কাই লিফট ব্যবহার করা হচ্ছে। এ পর্যন্ত ভবনটি থেকে অর্ধশতাধিক ব্যক্তিকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

উদ্ধারকর্মীরা জানিয়েছেন, উদ্ধার হওয়া সবাই কমবেশি আহত হয়েছেন।