গোলান মালভূমি ইসরাইলের এলাকা হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের স্বীকৃতিতে সৌদির নিন্দা

US-recognises-Israel-claim-on-Golan.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ দখলকৃত গোলান মালভূমিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইসরাইলের এলাকা হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের নিন্দা জানিয়েছে সৌদি আরব। মঙ্গলবার এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানায় সৌদি প্রেস এজেন্সি।

১৯৮১ সালে ইসরাইল গোলান মালভূমি তাদের এলাকা হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করেছিল।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, সৌদি আরবের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘বিষয়টির নিস্পত্তি হয়ে গেছে এমন পরিস্থিতি চাপিয়ে দেয়ার চেষ্টা করা হলেও ফ্যাক্ট বদলায়নি।’

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, আন্তর্জাতিক রেজল্যুশন অনুযায়ী গোলান মালভূমিকে দখলকৃত সিরীয় আরব ভূমি হিসেবে বিবেচনা করা হয়, এবং যুক্তরাষ্ট্রের স্বীকৃতিতে এই অবস্থা পাল্টাবে না।

‘এটা মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি প্রক্রিয়া এবং এই অঞ্চলের নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতার ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে,’ বলা হয় বিবৃতিতে।

রয়টার্স জানায়, সোমবার ডোনাল্ড ট্রাম্প যখন গোলানকে ইসরাইলের এলাকা হিসেবে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দেয়ার ঘোষণা স্বাক্ষর করেন তখন ওয়াশিংটন সফররত ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু তার ঠিক পিছনেই দাঁড়িয়ে ট্রাম্পের কাঁধের ওপর দিয়ে তাকিয়ে দেখছিলেন।

ইসরাইল ১৯৬৭ সালে সিরিয়ার কাছ থেকে গোলান মালভূমি দখল করে নেয় এবং ১৯৮১ সালে এটি তাদের এলাকা হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করে। তবে আন্তর্জাতিকভাবে ইসরাইলের এই পদক্ষেপকে স্বীকৃতি দেয়া হয়নি।

সোমবারের এই ঘোষণাকে সৌদি আরব ইউনাইটেড নেশনস চার্টার বা জাতিসংঘ সনদ এবং আন্তর্জাতিক আইনের পরিষ্কার লঙ্ঘন হিসেবে অভিহিত করেছে।