পুনরায় আন্দোলনে নেতৃত্ব দিলে গুলি করে মারার হুমকি

Rashed-Khan.jpg
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি :
বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা মুহাম্মদ রাশেদ খান পুনরায় কোন আন্দোলনে নেতৃত্ব দিলে তাকে গুলি করে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়েছে তার বাড়িতে গিয়ে।
ছেলেকে গুলি করে মেরে ফেলার হুমকি শুনে রাশেদের মা সালেহা বেগম হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। বর্তমানে তিনি ঝিনাইদহ ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। প্রায় আড়াই ঘন্টা পর তিনি জ্ঞান ফিরে পান।
বুধবার বিকেলে দুইজন ব্যক্তি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার চরমুরাড়ীদহ গ্রামে রাশেদের বাড়িতে গিয়ে এই হুমকি দেওয়া হয় বলে জানান মুহাম্মদ রাশেদ খান। পরিবারের সদস্যরা তাদের পরিচয় জানতে চাইলে তারা না দিয়ে ফিরে যান।
কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা মুহাম্মদ রাশেদ খান মুঠোফোনে জানান, পরবর্তী কোন আন্দোলনে নেতৃত্ব দিলে আমাকে গুলি করে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়েছে। বুধবার বিকেলে দুইজন ব্যক্তি আমার গ্রামের বাড়িতে গিয়ে এই হুমকি দেয় আমার মায়ের কাছে। মা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেছিল। আড়াই ঘন্টা পর জ্ঞান ফিরেছে। আপনারা আমার মায়ের জন্য দোয়া করবেন।
তিনি আরো বলেন, এর আগেও আমাকে এমন হুমকি দেওয়া হয়েছে।
ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান খান বলেন, এ ব্যাপারে আমার কাছে কোন তথ্য নেই। রাশেদের পরিবারের পক্ষ থেকেও কিছু জানায়নি পুলিশকে।