বিশ্বকাপ বাছাইয়ের টিকিট নিয়ে রাতে ফিরছে নারী ফুটবলাররা

women-1.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ  শেষ ম্যাচে চীনের প্রাচীর ভাঙতে পারেনি বাংলাদেশের মেয়েরা। তবে তার আগেই মারিয়া, তহুরা, মনিকারা নিশ্চিত করেছিলেন সেপ্টেম্বরে থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য ফিফা অনূর্ধ্ব-১৭ নারী বিশ্বকাপের বাছাইয়ের টিকিট। দ্বিতীয়বারের মতো এশিয়ার সেরা আটে নাম লিখিয়ে সোমবার রাতে ফিরছেন মিয়ানমার মাতানো লাল-সবুজ জার্সিধারী কিশোরীরা।

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইয়ের প্রথম পর্বে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন ও দ্বিতীয় পর্বে গ্রুপ রানার্সআপ হয়ে বাংলাদেশের মেয়েরা এখন খেলবে উত্তর কোরিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, থাইল্যান্ডের মতো শক্তিশালী দলের সঙ্গে চূড়ান্ত পর্বে। যে পর্ব বিশ্বকাপেরও বাছাই। ৮ দেশের মধ্যে তিনটি খেলবে ২০২০ সালের অনূর্ধ্ব-১৭ নারী বিশ্বকাপে।

মিয়ানমারে তিনটি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশের মেয়েরা। প্রথম ম্যাচে ১০-০ গোলে ফিলিপাইনকে উড়িয়ে দিয়ে দ্বিতীয় ম্যাচে ১-০ গোলে স্বাগতিক মিয়ানমারকে হারিয়ে চূড়ান্ত পর্ব নিশ্চিত করেছিল বাংলাদেশ।

শেষ ম্যাচে চীনকে হারাতে পারলে হতে পারতো গ্রুপসেরা। কিন্তু নারী ফুটবলে অনেক এগিয়ে থাকা চীনের কাছে বাংলাদেশ ৩-০ গোলে হেরেে রানার্সআপ হয়ে ফিরছে ঘরে।

মিয়ানমারের এ মিশন শেষ হতে না হতেই মেয়েদের সামনে দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই। ১২ মার্চ নেপালের বিরাট নগরে শুরু হবে নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ। বিশ্রামের সময় নেই। ঢাকায় ফেরার পর রাত পোহালেই আবার সাবিনা, কৃষ্ণা, মারিয়াদের নেমে পড়তে হবে সাফের প্রস্তুতিতে। ১০ মার্চ সকালে নারী ফুটবল দল যাবে নেপাল।