সফলতার মূলমন্ত্র

Mahbuba-Sultana-Sheuly-1.jpg

মাহবুবা সুলতানা শিউলি

একজন মানুষ সমানভাবে সবার প্রিয় হতে পারেননা বা সবার মন রক্ষা করে চলতে পারেননা। একইসময়ে সবার প্রিয় হতে হলে বা সবার মন রক্ষা করে চলতে গেলে কোন কাজই সঠিকভাবে করতে পারেননা বা কোন দায়িত্বই পরিপূর্ণভাবে পালন করা সম্ভব হয়না। একজন মানুষকে জনপ্রিয় হবার জন্য কিছু কৌশল অবলম্বন করতে হয় তবে শুধুমাত্র জনপ্রিয়তার দ্বারা নিজেকে প্রমান করার বা যোগ্যতা প্রকাশ করার কোন সুযোগ থাকেনা যদিনা অধ্যবসায়, সততা, সত্যবাদিতা, একাগ্রতা, উদারতা ও মানবিক গুণাবলীর সাথে কঠোর পরিশ্রম, লক্ষ্য স্হির রেখে অনলসভাবে কাজ করে না যায়। সবদিক দিয়ে জনপ্রিয় ব্যক্তি কখনও একজন ভাল শাসক হতে পারেননা। কারণ একজন ভাল শাসক কখনও সমানভাবে সবার প্রিয় ব্যক্তি হতে পারেননা। বিল কসবি ঠিকই বলেছেন — ” I don’t know the key to success, but key to failure is — trying to please everybody. ”
–Bill Cosby

জীবন চলার পথে মানুষ নানান অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হন, অনাকাঙ্ক্ষিত ভুলের বশবর্তী হন। তবে ভুল বুঝতেপারা ও তা সংশোধনের উপলব্ধি অনুভবে আসাটাই হচ্ছে একজন প্রকৃত, দায়িত্ববান মানুষের গুণাবলী, যা মানুষ উপলব্ধি করতে পারেনা বলেই ভুল থেকে বের হয়ে আসতে পারেননা।

একটি ভুল মানুষকে সংশোধনের হাজারটা পথ দেখিয়ে দেয়। তাই মানুষমাত্রই ভুল করবে এবং ঐ ভুলের দ্বারাই নিজেকে শুদ্ধ করার ও প্রকৃত মানুষ হিসেবে তৈরি করার প্রয়াস পাবে। ভুল আছে বলেই শুদ্ধ কী তা আমরা অনুধাবনের চেষ্টা করি। জীবনকে সুন্দরভাবে-পরিচ্ছন্নভাবে সংশোধন করে আগামীর জন্য প্রতিনিয়ত কাজ করে যেতে পারি। তাই বলবো– জীবন চলার পথে ভুল বা ব্যর্থতাই হচ্ছে সফলতার চাবিকাঠি। ভুল-ভ্রান্তি ও অন্যায় কী তা নিজেকেই উপলব্ধি করতে হবে। অন্য কেউ দেখিয়ে দিলে হয়তো সেইটা ভুল না সঠিক তা বুঝার ক্ষমতা থাকেনা। কারণ মানুষ যখন ভুলের মধ্যে থাকে তখন সঠিকটা কী তা সে কোনভাবেই বুঝতে পারেনা। উপলব্ধি টা নিজে থেকেই আসলে ভুল সংশোধন টাও সহজ হয়ে যায়। বিকেক যখন জাগ্রত হয় তখন পাপ বা অপরাধ আর ধারের কাছে ঘেষতে পারেনা।

অন্ধকার থেকে আলোকের পথে, অন্যায় থেকে ন্যায়ের পথে, পাপ থেকে পূণ্যের দিকে আসতে পারাটাই হচ্ছে সত্যিকারের সফলতা। টাকাপয়সা, জ্ঞানার্জন করলেই সফলতা অর্জন করা যায় বিষয়টা আসলে তা নয়। অজান্তে কৃত অপরাধ থেকে ফিরে আসতে পারা, পাপের প্রায়শ্চিত্ত হিসেবে পরমকরুনাময়ের কাছে ক্ষমা চেয়ে জীবসেবা ও মানবকল্যানে নিয়োজিত রাখতে পারাটাই হচ্ছে সফলতা। কঠিন পরিস্থিতির সাথে মোকাবেলা করে টিকে থাকতে পারাটাই হচ্ছে সফলতা। সুন্দরভাবে বেঁচে থাকতে পারাটাই সফলতা।

লতাজির সুমিষ্ট কন্ঠে গাওয়া একটি প্রার্থনা সংগীতের কিছু লাইনের কথা মনে পড়ে।

“মঙ্গল দ্বীপ জ্বে‌লে,
অন্ধকা‌রে দু‌’চোখ আলোয় ভ‌রো প্রভু______
তবু যারা বিশ্বাস ক‌রেনা – তু‌মি আছো
তা‌দের মার্জনা করো প্রভু।।

‌যে তু‌মি আলো দি‌তে, প্র‌তি‌দিন সূর্য ওঠাও,
ও‌দের বু‌ঝি‌য়ে দাও সেই তু‌মি,
পাথ‌রেও ফুলযে ফোটাও।
জীবন মরু‌তে, করুনা ধারায় ধ‌রো প্রভু।।

ব‌লো তার কি অপরাধ, জন্ম হ‌য়ে‌ছে যার পা‌পে,
‌তোমারও ক্ষমা দি‌য়ে তু‌মি, ‌ফোটাও পদ্ম ক‌রে তা‌কে,
ভুল প‌থে গে‌লে, তু‌মি এসে হাত ধ‌রো প্রভু।।”

কন্টকময় পথ পাড়ি দিয়েই সোনালী ভোরের ছবি দেখবো এই হোক সবার অঙ্গীকার।

আল্লাহ্ সবার সহায় হোক, সবার ধৈর্য ধারণ করার অসীম ক্ষমতা দান করুক, সবাইকে সুস্থ বোধ্শক্তি দিক। আমিন।
____________________________________
লেখক: মাহবুবা সুলতানা শিউলি, মেম্বার, বোর্ড অব ট্রাস্টিজ , কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি।