আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করেছে বান্দরবান বিশ্ববিদ্যালয়

badaban-University.jpg

বান্দরবান প্রতিনিধি:বান্দরবানের সংসদ সদস্য ও পাবর্ত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এর প্রতিশ্রুতি বাস্তবে রূপ নিয়েছে। বান্দরবানে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করেছে উচ্চতর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বান্দরবান বিশ্ববিদ্যালয়।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং পতাকা উত্তোলন ও ফিতা কেটে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

এর আগে মন্ত্রী পঞ্চম মেয়াদে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে বান্দরবানে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার আগ্রহের কথা জানিয়েছিলেন।
উদ্বোধনকালে মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেন, বান্দরবানের মানুষের দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতে পাহাড়ের শিক্ষাকে আরও এগিয়ে নিতে বান্দরবানে বিশ্ববিদ্যালয় কার্যক্রম শুরু করল। যা শিক্ষাক্ষেত্রে ব্যাপক অবদান রাখবে।

বান্দরবান বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনকালে স্বাগত বক্তব্য রাখেন পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লা।

অনুষ্ঠানে ওরিয়েন্টেশন বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য প্রফেসর ড. এম শাহ নওয়াজ আলী, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সদস্য মো. নুরুল আমিন, রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. প্রদানেন্দু বিকাশ চাকমা, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ দাউদুল ইসলাম, বান্দরবান সেনা রিজিয়নের ভারপ্রাপ্ত রিজিয়ন কমান্ডার লে. কর্ণেল এস এম আব্দুল্লাহ আল-আমিন, পুলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদার, পৌর মেয়র ইসলাম।
এছাড়াও অনুষ্ঠানে জেলা পরিষদ সদস্য লক্ষীপদ দাশ, মোজাম্মেল হক বাহাদুর, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুছ, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নোমান হোসেন প্রিন্স, বান্দরবান প্রেসক্লাব সাবেক সভাপতি বাদশা মিয়া মাস্টার, বর্তমান সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাচ্চু, দৈনিক সচিত্র মৈত্রী পত্রিকার সম্পাদক অধ্যাপক মো. ওসমান গণি, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা একেএম জাহাঙ্গীরসহ সরকারি কর্মকর্তা, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান, সাংবাদিক ও আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আগে বর্ণাঢ্য একটি শোভাযাত্রা শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এতে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ অংশ নেন।