ভোটকেন্দ্র ভিত্তিক নেতৃবৃন্দের মতামতেই উন্নয়ন কর্ম পরিচালিত হবে

Mp-Komol.jpg

নীতিশ বড়ুয়া, রামু

কক্সবাজারের রামু উপজেলার ৬১ ভোট কেন্দ্রের নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভায় কক্সবাজার সদর-রামু আসনের নব নির্বাচিত সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল সদ্য সমাপ্ত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ পরিবার ও এলাকার সচেতন জনগণ ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্ঠায় বিপুল ভোটে পুনরায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত করায় সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, জনগণ এখন আমাকে মন্ত্রী হিসাবে দেখতে চায়। আমি এমন একটি সংগঠনের সংসদ সদস্য, যে সংগঠনে ২৫৯ টি আসনে নৌকা বিজয়ী হয়েছে। তাদের মধ্যে সম্ভবত ২৫০ জনই আমার চেয়ে বয়সে বড়। তাদের ত্যাগ, অভিজ্ঞতা ও যোগ্যতা আমার চেয়ে বেশী আছে বলে আমি মনে করি।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে মন্ত্রী না করলেও ইনশাল্লাহ আমি আগের মতো একজন মন্ত্রীর এলাকার উন্নয়নের চেয়ে বেশী উন্নয়ন কক্সবাজার-রামুতে করতে পারবো। নির্বাচনে যারা অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন তাদের মতামতের ভিত্তিতে প্রতিটি ইউনিয়নে আগের চেয়ে বেশী উন্নয়ন করতে এমপি কমল সকল নেতৃন্দের সহযোগিতা কামনা করেছেন। তিনি কেন্দ্র ভিত্তিক বা ওয়ার্ড পর্যায়ে সমস্যা চিহ্নিত করে তা সমাধান করা হবে বলেও উল্লেখ করেন।

গতকাল শুক্রবার (১১ জানুয়ারি) সকাল ১১ টায় রামু স্বপ্নপুরী কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত মত বিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন। দ্বিতীয় বারের মতো নির্বাচিত সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল আরো বলেন, রামু উপজেলা আওয়ামীলীগের মেয়াদ উর্তিন্ন কমিটির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও তাদের কয়েকজন অনুসারি আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকে ভোট দেয়নি। নির্বাচন চলাকালিন সময়ে সাধারণ সম্পাদক সামশুল আলম মন্ডল বিএনপি প্রার্থীর নিরিবিলিতে আসা-যাওয়া করতেন। সংসদ নির্বাচনে যারা নৌকায় ভোট দেয়নি আগামীতে তাদের বয়কট করতে হবে।
সভার শুরুতে পবিত্র কোরান থেকে তেলাওয়াত করেন, রামু উপজেলা ওলামালীগের সভাপতি মৌং নুরুল আজিম।

সভায় কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি জাফর আলম চৌধুরী চেয়ারম্যান, রামু উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও যুবলীগ সভাপতি রিয়াজ উল আলম, ভাইস চেয়ারম্যান আলী হোসেন কোম্পানী, গর্জনীয়া ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান তৈয়ব উল্লাহ চৌধুরী, কাউয়ারখোপ ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল হক, ঈদগড় ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম বাঙ্গালী, কচ্ছপিয়া ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান হাবিব আহমদ, জোয়ারিয়ানালা ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান এমএম নুরুচ ছাফা, খুনিয়াপালং ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল গণি সওদাগর, কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য শামসুল আলম চেয়ারম্যান, নুরুল হক কোম্পানী, রামু চাকমারকুল ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম সিকদার, ফতেখাঁরকুল ইউপি চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম, সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম ভুট্টো, খুনিয়াপালং ইউপি চেয়ারম্যান সাংবাদিক আব্দুল মাবুদ, ঈদগড় ইউপি চেয়ারম্যান ফিরোজ আহমদ ভুট্টো, ঈদগড় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হাজ্বী নুরুল আলম, যুবলীগ সভাপতি মনিরুল ইসলাম মনির, দক্ষিন মিঠাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ইউনুচ ভুট্টো, দক্ষিন মিঠাছড়ি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জুহুর আলম, সাধারণ সম্পাদক ওসমান গণি, রাজারকুল ইউপি চেয়ারম্যান মুফিজুর রহমান, কাউয়ারখোপ ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ, উপজেলা যুবলীগ সহ সভাপতি ওসমান সরওয়ার মামুন, স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি নুরুল ইসলাম নাহিদ, রশিদনগর ইউপি চেয়ারম্যান এমডি শাহ আলম, রশিদনগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি বজল আহমদ বাবুল, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মিজানুল করিম মিজান, যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মুবিনুর রহমান, কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর সিকদার, সাধারণ সম্পাদক, আব্দুর রহিম, আওয়ামীলীগ নেতা জাকের আহমদ মেম্বার, যুবলীগ সভাপতি নজরুল ইসলাম মেম্বার, সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন সিকদার সোহেল, যুবলীগ নেতা এম সেলিম, গর্জনিয়ার ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, গর্জনিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ফরিদ আহমদ চৌধুরী, আইয়ুব সিকদার, মোঃ ইউছুপ মেম্বার, মোঃ ইয়াহিয়া চৌধুরী, জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আবছার কামাল সিকদার, সাধারণ সম্পাদক মোঃ হোছন সিকদার, জোয়ারিয়ানালার সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ফরিদ বক্ত বাবুল, আওয়ামীলীগ নেতা রফিক আহমদ মেম্বার, হাবিবুর রহমান হাবিব, জসিমুল ইসলাম মেম্বার, মহলুজ্জামান মেম্বার, মোঃ রুবেল মেম্বার, আবু তালেব মেম্বার, ওবাইদুল হক, আমিন উদ্দিন মনু মেম্বার, রাখাল রুদ্র, এড. কাজল, ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আনচারুল আলম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। রামু উপজেলা স্বেচ্ছসেবকলীগ সাধারণ সম্পাদক তপন মল্লিকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় রামু উপজেলা, ইউনিয়ন, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ ও সহযোগি সংগঠনের নেতৃতৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।