‘সেরা জয়’ নিয়ে উড়ছেন কোহলি

Kohily.jpg

ওয়ান নিউজ ক্রীড়া ডেক্সঃ তিনি শুধু সময়ের সেরাই নন, সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যানদের একজন। অধিনায়ক হিসেবেও নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যাচ্ছেন বিরাট কোহলি। উপমহাদেশের অন্য কোন অধিনায়ক যা পারেন নি, তাই করে দেখালেন তিনি। প্রথম অধিনায়ক হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টেস্ট সিরিজ জিতেছেন কোহলি। সোমবার সিডনি টেস্ট বৃষ্টির কারণে ড্র হতেই ঐতিহাসিক এই সাফল্য যোগ হয় তার নামের পাশে।

ভারত অধিনায়ক এখন হাওয়ায় উড়ছেন। ১৯৪৭ সাল অস্ট্রেলিয়া সফর শুরু করেছিল ভারত। এরপর কোহলির অগ্রজ ক্রিকেটাররা সাদা পোশাকে হতাশা নিয়েই ফিরেছেন। কিন্তু তিনি এনে দিলেন বিস্ময়কর সাফল্য। তাইতো বলছিলেন, এটাই এখন অব্দি তার চোখে নিজের সেরা সাফল্য।

বিশ্বকাপ ট্রফিও উঠেছে কোহলির হাতে। ২০১১ সালে ঘরের মাঠে ভারতের ট্রফি জয়ে বড় ভূমিকা ছিল তার। সেই অর্জনে তাকিয়েও অস্ট্রেলিয়ায় টেস্ট সিরিজ জেতাতে এগিয়ে রাখছেন তিনি। সোমবার সিডনিতে সেই সাফল্যের পর স্ত্রী আনুশকা শর্মার হাত ধরে মাঠে নেমে আসেন বিরাট। আনন্দ উদযাপনে মেতে উঠেন।

https://i2.wp.com/img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jan/07/1546859431195.jpg?w=660&ssl=1

এরপরই গণমাধ্যমে কোহলি জানালেন, ‘দেখুন, এখন পর্যন্ত এটিই আমার কাছে সেরা জয়। ক্যারিয়ারের সব থেকে বড় সাফল্য। বিশ্বকাপের সময় আমি অনেক তরুণ ছিলাম। দেখেছিলাম, সবাই আবেগে ভাসছে। এই সিরিজ অন্য এক মাত্রা এনে দিয়েছে। এমন একটা সিরিজ জিতলাম করলাম, সত্যিই গর্ব হচ্ছে।’

মজার ব্যাপার হল এই সিডনিতেই অধিনায়ক কোহলির পথচলা শুরু হয়েছিল। গত অস্ট্রেলিয়া সফরের মাঝপথে টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। সেই দিনটা এখনো ভুলতে পারেন নি তিনি। জানাচ্ছিলেন, ‘দেশের নেতৃত্বে পরই আমার মানসিকতা বদলে যায়। এবার একটা শব্দ বলতে পারি, আমি গর্বিত। দেশের ক্রিকেটারদের নেতৃত্ব দিতে পেরে আমি আপ্লুত। সময়টা উপভোগ করতে চাই আমি।’

https://i1.wp.com/img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jan/07/1546859449039.jpg?w=660&ssl=1

এই সাফল্যের পর প্রশংসায় ভাসছেন সিরিজসেরা চেতেশ্বর পূজারা। যিনি ৪ টেস্টে ৩ সেঞ্চুরিতে ৫২১ রান করেছেন। অজি ক্রিকেট কিংবদন্তি ইয়ান চ্যাপেল বলছিলেন, ‘দেখুন, বিরাট কোহলি ভারতীয় ক্রিকেটের রাজা হতে পারে কিন্তু সেই রাজ্যে পূজারা বিশেষ কিছু। ও কোহলির মতোই বন্দনার যোগ্য।’ সঙ্গে যোগ করলেন, ‘অস্ট্রেলিয়া দল কোহলিকে আটকানোর পরিকল্পনা করছে। কিন্তু পূজারা পেছন থেকে এসে সবাইকে চমকে দিল।’

চার টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে অ্যাডিলেড টেস্টে ৩১ রানে জিতেছিল ভারত। এরপর পার্থ টেস্টে ১৪৬ রানে হারে সফরকারীরা। তবে মেলবোর্নে বক্সিং ডে টেস্টে ১৩৭ রানে জয় আবার এগিয়ে দেয় কোহলিদের। সিডনিতে শেষ টেস্টে ড্রয়ের পর ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতল ভারত!