আফ্রিদি-ঝড়ে হারল সিলেট

Afridi.jpg

ওয়ান নিউজ ক্রীড়া ডেক্সঃ ১২৭ রান। টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটে স্বল্প পুঁজিই। কিন্তু এই পুঁজি নিয়েই লড়াই করেছে সিলেট সিক্সার্স। কিন্তু শহীদ আফ্রিদি-ঝড়ের কাছে মানতে হয়েছে তাদের। রোববার বিপিএলের দ্বিতীয় দিনের প্রথম ম্যাচে সিলেটের বিপক্ষে ৪ উইকেটের জয় পেয়েছে কুমিল্লা ভিক্টেরিয়ান্স।

১২৮ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে কুমিল্লাও শুরুতে বেশ চাপে পড়ে। শুরুতেই ওপেনার এভিন লুইসের (৫) উইকেটটি হারিয়ে বসে তারা। তিন নম্বরে নামা সাব্বির রহমানও (০) ফিরে যান দ্রুত। এরপর অন্য ওপেনার তামিম ইকবালের সাথে যোগ দেন অধিনায়ক স্মিথ।

তবে স্মিথের বিপিএলের অভিষেক ইনিংসটা সুখকর হয়নি। ব্যক্তিগত ১৬ রানে আউট হয়ে যান সাবেক এই অজি অধিনায়ক। মহামূল্যবান এই উইকেটটি নিয়ে উল্লাসে মাতেন আল আমিন হোসেন।

এরপর শোয়েব মালিক এসে খুব বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে পারেননি। ২০ বলে ১৩ রান করে নেপালি স্পিনার সন্দিপ লামিছানের শিকার হয়ে ফিরে যান এই পাকিস্তান ব্যাটসম্যান। ৬ নম্বরে নামা এনামুল হকও (৫) লামিছানের শিকার হয়ে মাঠ ছাড়েন।

এদিকে অন্যপ্রান্তে দারুণ দৃঢ়তা নিয়ে খেলতে থাকা তামিম ইকবাল শিকার হন রান আউটের। ইনিংসের ১৭তম ওভারের তৃতীয় বলে রান নিতে আউট হয়ে যান তামিম। ৩৪ বলে ৩৫ রান করেছেন তিনি। দলীয় রান তখন ৯৭।

তামিম ফিরে গেলেও কুমিল্লাকে কোন বিপদে পড়তে দেননি আফ্রিদি। মোহাম্মদ সাইফুদ্দীনকে নিয়ে ১৩০ রান করে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন তিনি। পাকিস্তানের এই মারকুটে ব্যাটসম্যান ২৫ বলে অপরাজিত ৩৯* রান করেছেন। মেরেছেন ২টি ছক্কা ও ৫টি চারের মার।

সিলেটের হয়ে দুইটি করে উইকেট নিয়েছেন আল আমিন হোসেন ও সন্দিপ লামিছানে।

এর আগে বিপিএলে প্রথম বারেরর মতো টস করতে নামেন স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার। ওয়ার্নার সিলেটকে নেতৃত্ব দেবেন এটা আগেই জানা ছিল। কুমিল্লার অধিনায়ক হিসেবে এতদিন না ছিল তামিম ইকবালের। কিন্তু শনিবার ফ্র্যাঞ্চাইজির পক্ষ থেকে জানানো হয়, তামিম নয়, স্মিথই কুমিল্লাকে নেতৃত্ব দেবেন।

টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নামে সিলেট। কিন্তু ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় খুব বড় রান করতে পারেনি তারা। বিপিএলে নিজের অভিষেক ম্যাচে মাত্র ১৪ রান করতে পারেন ওয়র্নার। দুর্ভাগ্যজনক রান আউটের শিকার হয়ে মাঠ ছাড়তে হয় তাকে।

এদিকে টপ অর্ডারের কোন ব্যাটসম্যানই দাঁড়াতে পারেননি। নিকোলাস পুরান ও অলক কাপালীর ৫৫ রানের জুটিতেই এক শ পেরুনো রান করতে পারে সিলেট। নিকোলাস ২৬ বলে ৪১ রানের একটি ঝড়ো ইনিংস খেলেন।

এদিকে কাপালী আউট হন ব্যক্তিগত ১৯ রানে। শুরু থেকে মারমুখী খেলতে তাকা আফিফ হোসেনও ১৯ রান করে আউট হন। এই ৩ জন ছাড়া সিলেটের আর কোন ব্যাটসম্যান দুই অংকের ঘরে পৌঁছাতেদ পারেননি।

কুমিল্লার হয়ে ২টি করে উইকেট নিয়েছেন মেহেদী হাসান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দীন ও মোহাম্মদ শহীদ।