দেশে ফেসবুকের ওয়াইফাইয়ের প্রস্তাবে বিটিআরসির ‘না’

Facebook.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ রবিকে সঙ্গে নিয়ে ফেসবুকের সারা দেশে ওয়াইফাই ও হটস্পট নেটওয়ার্ক তৈরির প্রস্তাবে না করে দিয়েছে বিটিআরসি। বিটিআরসি বলছে, ফেসবুক-রবিকে এটি করতে দেয়া হলে দেশের আরও মোবাইল অপারেটর ও ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডাররা ইন্টারনেটের ব্যবসা নিয়ে অসম চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বে।

তবে, ফেসবুক বলছিল- এক্সপ্রেস ওয়াইফাই ইতিমধ্যে কয়েকটি দেশে চালু করা হয়েছে এবং এর সম্পর্কিত উন্নত নেটওয়ার্ক প্রযুক্তির পরীক্ষাও চালাচ্ছে তারা। ইন্টারনেট সুবিধাবঞ্চিত বা কম সম্প্র্রসারিত অঞ্চলগুলোতে বিশেষ নেটওয়ার্ক ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে কম খরচে দ্রুতগতির ইন্টারনেট সেবা দেবে এই এক্সপ্রেস ওয়াইফাই।

বিটিআরসির পক্ষ থেকে বলা হয় স্বাভাবিকভাবেই বাজার ব্যবস্থার জন্য এটি যুক্তিযুক্ত নয়। আর এ জন্যই এই প্রস্তাবে সায় দেয়া হয়নি।

প্রস্তাবে বলা হয়েছিল, নিজেদের এই ‘বিশেষ নেটওয়ার্ক’-এর মাধ্যমে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলসহ সব জায়গার মানুষ কম খরচে ও দ্রুতগতির ইন্টারনেট সেবা পাবে।

বিটিআরসির সংশ্লিষ্ট বিভাগের এক কর্মকর্তা বলছেন, আপাত দৃষ্টিতে মনে হচ্ছে, এটি গ্রাহকের জন্য কম খরচের হতো। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে এটি দেশের গোটা ইন্টারনেট খাতকে বড় একটি ধাক্কা দিয়ে দিত।

ইতিমধ্যে এই এক্সপ্রেস ওয়াইফাই নিয়ে অ্যাপও এনেছে ফেসবুক। যদিও তা সব দেশে ব্যবহার করা যায় না। কেনিয়াতে এক্সপ্রেস ওয়াইফাইয়ে যুক্ত হলে একজন গ্রাহক শুরুতে টানা পাঁচদিনের প্রতিদিন ১০০ এমবি ডেটা ফ্রি পান। সেখানে তার স্থানীয় অংশীদার সার্ফ নামে একটি ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান।

ফেসবুক কেনিয়া, ভারত, তানজানিয়া, নাইজেরিয়া আর ইন্দোনেশিয়ায় এই এক্সপ্রেস ওয়াইফাই নিয়ে কাজ করছে। আর এক্সপ্রেস ওয়াইফাইয়ের জন্য মেশ প্রযুক্তি নিয়ে তানজানিয়া ছাড়াও আয়ারল্যান্ড, দুবাই, ইসরাইলে পরীক্ষা চালাচ্ছে।

যে সব দেশে এক্সপ্রেস ওয়াইফাই চালু রয়েছে সেখানকার তথ্যপ্রযুক্তি পণ্য নির্মাতা এবং মোবাইল অপারেটরদের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করে থাকে ফেসবুক। সেখানকার আইএসপি, ওয়াইফাই ও হটস্পট সেবাদাতা কোম্পানিগুলোর নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে তারা।