সংলাপ চেয়ে প্রধানমন্ত্রীকে ফের কামালের চিঠি

Oykko-Front.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ আবারও সংলাপের জন্য আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে চিঠি পাঠিয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। রোববার (০৪ নভেম্বর) সকালে ধানমণ্ডির কার্যালয়ের কর্মকর্তা আলাউদ্দিনের হাতে এই চিঠি হস্তান্তর করেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা আ অ ফ শফিক উল্লাহ ও বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান।

বিষয়টি নিশ্চিত করে শায়রুল কবির খান বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা থাকায় আওয়ামী লীগ নেতারা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অবস্থান করছেন বলে আমাদের জানানো হয়েছে। সেজন্য আলাউদ্দিনের কাছে আমরা চিঠি পৌঁছে দিয়েছি।

ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পাঠানো চিঠিতে ড. কামাল হোসেন লেখেন, গত ১ নভেম্বর গণভবনে অনুষ্ঠিত সংলাপে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ৭ দফা দাবির ব্যাপারে আলোচনা হয়েছে। এ আলোচনার উদ্যোগ গ্রহণ করার জন্য আপনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। দীর্ঘ সময় পর্যন্ত আলোচনার পরও আমাদের আলোচনাটি অসম্পূর্ণ থেকে যায়। সেই দিন আপনি বলেছিলেন আমাদের আলোচনা অব্যাহত থাকবে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে আমরা আবারও সংলাপে বসতে আগ্রহী। এ ক্ষেত্রে দফাগুলোর সাংবিধানিক এবং আইনগত দিক বিশ্লেষণের জন্য উভয় পক্ষের বিশেষজ্ঞসহ সীমিত পরিসরে আলোচনা আবশ্যক।

তিনি আরও লেখেন, আপনার অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, সংলাপ শেষ হওয়ার আগে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা না করার আহ্বান জানিয়ে, ৩ নভেম্বর প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে গত বৃহস্পতিবার সংলাপ কার্যত ‘ফলপ্রসূ’ না হলেও হাল ছাড়েনি জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। সরকারের সঙ্গে শেষ পর্যন্ত দরকষাকষি করে দাবি আদায়ের সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যেতে চান ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। দেশি-বিদেশিদের কাছেও দেখাতে চান যে রাজনৈতিক সমঝোতার বিষয়ে তাদের ইতিবাচক মনোভাব রয়েছে। এ লক্ষ্যেই প্রথম দিনের সংলাপে প্রধানমন্ত্রী সংবিধানের বাইরে গিয়ে কোনো দাবি মানা সম্ভব নয় জানালেও ‘ছোট পরিসরে’ আবার সংলাপে বসার আগ্রহ দেখিয়ে আসছেন ড. কামাল হোসেন। সরকারি দলের পক্ষ থেকেও বলা হয়, ঐক্যফ্রন্ট চাইলে তারা সংলাপে বসতে পারেন।