জাপানে বৃহত্তম যুদ্ধ-মহড়ায় পরমাণুশক্তি চালিত মার্কিন রণতরী

Biggest-war-drill-in-japan.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ পশ্চিম প্যাসিফিক অঞ্চলের ওপর দিয়ে শনিবার প্রবল গতিতে উড়তে দেখা যায় মার্কিন যুদ্ধবিমান। পরমাণুশক্তি চালিত বিমানবাহী রণতরী ইউএসএস রোনাল্ড রিগ্যান জাপান ও কানাডার যুদ্ধজাহাজের সঙ্গে মিলিতভাবে সেখানে যুদ্ধের মহড়া করেছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, এটাই এখন পর্যন্ত জাপান ও তার আশেপাশের অঞ্চলের আয়োজিত সর্ববৃহৎ যুদ্ধের প্রস্তুতি।

জাপান ও যুক্তরাষ্ট্র এতে ৫৭ হাজার নাবিক, মেরিন সৈন্য ও বিমানসেনা পাঠিয়েছে।

প্রতি দুই বছর পর পর ‘কিন সোর্ড’ নামের এই যৌথ মহড়ার আয়োজন করা হয়।

২০১৬ সালের চেয়ে এবছর মহড়ায় ১১ হাজার বেশি সৈন্য অংশ অংশ নিয়েছে। এসময় তারা বিমান যুদ্ধ, উভচর অবতরণ, ও ক্ষেপনাস্ত্র প্রতিহত করার অনুশীলন করে।

মহড়ায় যোগ দেয়া জাপানের ৪৭ হাজার সৈন্য দেশটির সশস্ত্রবাহিনীর মোট সৈন্য সংখ্যার পাঁচ ভাগের এক ভাগ।

বিমানবাহী রণতরীর সঙ্গে আরও আটটি যুদ্ধজাহাজ অনুশীলনে অংশ নিয়েছে। তারা সাবমেরিন বিধ্বংসী কৌশলের মহড়া দেয়। সমুদ্রে চীন শক্তিশালী হয়ে উঠতে পারে এমন আশঙ্কা করছে ওয়াশিংটন ও টোকিও।

‘যুক্তরাষ্ট্র-জাপান মৈত্রী এই অঞ্চল ও বৃহত্তর ইন্দো-প্যাসিফিক এলাকার স্থিতিশীলতার জন্য একান্ত  জরুরী,’ বলেন রিয়ার অ্যাডমিরাল হিরোশি এগাওয়া। জাপানি জুদ্ধজাহাজের এই কমান্ডার রণতরী রিগানে অবস্থান করছিলেন।

কানাডার একটি নৌবাহিনীর রশদ সরবরাহকারী জাহাজও এবার মহড়ায় যোগ দিয়েছে।