আপডেটঃ
সততার শক্তি অপরিসীম, সেটা আমরা বারবার প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছি৫৬ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা ঢাকা ডায়নামাইটসসর্বক্ষেত্রে আল্লাহ তা’আলার নির্দেশ মেনে চলার নাম ইবাদতকক্সবাজার জেলায় ওয়াইফাই জোন স্থাপনের নিমিত্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিতবেনাপোল পুটখালী ফেনসিডিল সহ আটক ৩ফরহাদ রেজার ঝড়ে হেরে গেলেন স্বাগতিক সিলেট সিক্সার্সযে আস্থা এবং বিশ্বাস নিয়ে জনগণ আমাকে ভোট দিয়েছে, সে মর্যাদা আমি রক্ষা করবঃ প্রধানমন্ত্রীঅবশেষে জ্বলে উঠল সাব্বিরবাংলাদেশের রাজনৈতিক দলগুলোকে ফের সংলাপে বসার আহ্বান জাতিসংঘআগামী সোমবার ঘটবে পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণসভামঞ্চে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের বিজয় সমাবেশ আজ‘জঙ্গিবাদ ও মাদকমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে তরুনরাই হবে আগামী দিনের সৈনিক’চট্টগ্রামে ৩টি হাইটেক পার্ক হচ্ছেপ্রতারণামূলক বাণিজ্য ‘১টি কিনলে ১০টি ফ্রি!’

একশ’ পেরোতেই শেষ উইন্ডিজ

Dhoni.jpg

ওয়ান নিউজ ক্রীড়া ডেক্সঃ ভারতের বিপক্ষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওয়ানডে সিরিজে অনেক কিছুর দেখা মিলল। জোড়াই-জোড়াই সেঞ্চুরি। তিনশ’ পেরোনো রান টপকে সহজ জয়। আবার তিনশ’র ওপর রান করেও ম্যাচ টাই। এবার সিরিজের পঞ্চম ও শেষ ওয়ানডে ম্যাচে একশ’ রান পেরোতেই অলআউট হয়ে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ভারতের বোলিং তোপে তারা করতে পেরেছে মাত্র ১০৪ রান।

বৃহস্পতিবার গ্রিনফিল্ড আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে সিরিজের শেষ ওয়ানডে ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজ। কিন্তু তাদের শুরুতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত ভুল হয়েছে বলে প্রমাণ করেন ভারতীয় বোলাররা। শুরু থেকেই উইকেট তুলে নিতে থাকেন তারা। ভুবনেশ্বর-খলিল আহমেদদের দুর্দান্ত বোলিংয়ে ২ রানের মাথায় দুই উইকেট হারায় তারা। এরপর রান পঞ্চাশ পেরোতেই ৪ উইকেট হারিয়ে ধুকতে থাকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সেখান থেকে আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি তারা।

সিরিজ জুড়ে দারুণ ফর্মে থাকা শাই হোপ এবং সিমরন হেটমায়ার এ ম্যাচে পুরোপুরি ব্যর্থ হন। তবে মারলন স্যামুয়েলস ধরেন দলের হাল। কিন্তু তিনি দলকে যথেষ্ঠ ভরসা দিতে পারেননি। দলের পক্ষে তিনি করেন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৪ রান। এছাড়া দলীয় অধিনায়ক এবং পেসার জেসন হোল্ডার করেন ২৫ রান। শেষ পর্যন্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংস থামে ১০৪ রানে। দলের হয়ে এই দু’জন ছাড়া রোভম্যান পাউয়েল কেবল ১০ রানের কোটা পার করতে পারেন।

ভারতের বোলাররা ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৩১.৫ ওভারে অলআউট করে দেয়। দলের হয়ে রাভেন্দ্র জাদেজা ৩৪ রানে ৪ উইকেট নেন। মাত্র ১১ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন বুমরাহ। এছাড়া খলিল আহমেদ ২টি এবং ভুবনেশ্বর কুমার ও কুলদীপ যাদব একটি করে উইকেট নেন।

Top