জয়ার দেবীতে বাড়ছে দর্শক আগ্রহ

Joya.jpg

ওয়ান নিউজ বিনোদন ডেক্সঃ মুক্তির প্রথম দিন থেকে জয়া আহসান অভিনীত ও প্রযোজিত ‘দেবী’ সিনেমার প্রতি দর্শক আগ্রহ ছিল লক্ষণীয়। পরিবারের সবাইকে নিয়ে মানুষ প্রেক্ষাগৃহে ছুটছেন, এমন দৃশ্য বেশ কিছুদিন পর এই ছবির মাধ্যমে দেখা যায়। প্রেক্ষাগৃহের মালিকদের আগ্রহ থাকা সত্ত্বেও শুরুর দিকে ছবিটি মাত্র ২৮টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। সপ্তাহ পার হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রেক্ষাগৃহের সংখ্যা বাড়াতে বাধ্য হচ্ছেন জয়া। আগামী সপ্তাহ থেকে নতুন সাতটি প্রেক্ষাগৃহে যোগ হচ্ছে। ৩৫ প্রেক্ষাগৃহে একযোগে চলবে দেবী। প্রেক্ষাগৃহ বাড়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জয়া আহসান।

জয়া বলেন, ‘প্রথম দিনের প্রথম শো থেকেই “দেবী” ছবিটি নিয়ে দর্শক ইতিবাচক মতামত দিচ্ছেন। ছবিটি দর্শক পছন্দ করছেন, এটা নিঃসন্দেহে বেশ ভালো লাগার অনুভূতি। এর মধ্যে শুনলাম প্রেক্ষাগৃহ বাড়ার খবরও। সত্যি কথা বলতে, দর্শকের ভালোবাসার কারণেই এমনটা হয়েছে। অনেক প্রেক্ষাগৃহের মালিক ছবিটি নিয়ে আগ্রহ দেখাচ্ছেন। কিন্তু অনেক কিছু ভেবে, প্রেক্ষাগৃহের পরিবেশ দেখে তারপর সিদ্ধান্ত নিচ্ছি। খুব বেশি তাড়াহুড়ো করতে চাই না।’

‘দেবী’ ছবির দৃশ্যে জয়া আহসান ও অনিমেষ আইচ, ছবি – সংগৃহীত‘দেবী’ ছবির দৃশ্যে জয়া আহসান ও অনিমেষ আইচ, ছবি – সংগৃহীত

দেবী’ ছবিটি পরিবেশনা করছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। ইতিমধ্যে ‘দেবী’ নাকি ব্যবসায়িক দিক দিয়ে হিট হয়েছে বলেও জানান ছবিটির পরিবেশক আবদুল আজিজ। গত সোমবার সন্ধ্যায় ঢাকার একটি প্রেক্ষাগৃহে জয়া আহসানকে দেশের সিনেমার এই প্রযোজক ও পরিবেশক জিজ্ঞেস করে বসেন, প্রথম ছবিই যেহেতু লাভ করেছেন, এই টাকা দিয়ে তাহলে কি বাড়ি করবেন, নাকি মার্সিডিজ গাড়ি কিনবেন? উত্তরে জয়া বলে দেন, ‘মার্সিডিজ বা গাড়ি কিনলে তো আমি বহু আগেই কিনতে পারতাম। ছবি তৈরি করতে আসতাম না। অবশ্যই আমি আরেকটা ভালো ছবি তৈরি করব।’

সরকারি অনুদান ও অভিনেত্রী জয়া আহসানের প্রযোজনা সংস্থা ‘সি তে সিনেমা’র প্রথম চলচ্চিত্র ‘দেবী’। অভিনব কৌশলে প্রচারণার জন্য চলচ্চিত্রপ্রেমীরা ছবিটি নিয়ে প্রতীক্ষায় ছিলেন। ছবিতে মিসির আলি চরিত্রে অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী, রানু চরিত্রে অভিনয় করেছেন জয়া আহসান, রানুর স্বামীর চরিত্রে আছেন অনিমেষ আইচ, নীলু চরিত্রে শবনম ফারিয়া এবং আহমেদ সাবেরের চরিত্রে আছেন ইরেশ যাকের।