আপডেটঃ
ইছানগরের আলোচিত সেই ভবন মালিকের আত্মসমর্পণস্থানীয়দের মাঝে বহাল তবিয়তে অর্ধলক্ষাধিক রোহিঙ্গার বসবাস!আল্লাহর কাছে ক্ষমা চেয়ে আত্মসমর্পণ করুন -স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালরোহিঙ্গ্যা মানবিক সংকটে জাতিসংঘের ৯২০মিলিয়ন ডলার আহ্বানতিনদিনের সফরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন এখন কক্সবাজারেচট্টগ্রামে মানবিক মেলা উদ্বোধন করেন ভূমিমন্ত্রী‘এ যেন ভানুমতির খেল’৯ শিশু শিক্ষার্থীর স্মরণে শোক র‌্যালিমানবাধিকার কর্মী ও ভুয়া সাংবাদিকদের প্রতারণার দৌরাত্ব্য বেড়েই চলেছেনির্বাচন কমিশনে চাকরিশিল্প মন্ত্রণালয়ে নিয়োগযৌন প্রস্তাবের যে গোপন কোড ফাঁস করলেন শার্লিনকিং সৌদ বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন অ্যাওয়ার্ড পেলেন ২ বাংলাদেশি শিক্ষার্থী‘নতুন রোনাল্ডোর’ জন্য ম্যানইউর ১০০ মিলিয়ন ইউরোবিশ্ব ইজতেমা টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে শুরু হয়েছে আজ

নাইক্ষ্যংছড়িতে ৪ জন অপহরনঃ মুক্তিপন দাবী

FB_IMG_1516453929906.jpg

 

হাবিবুর রহমান সোহেল, নাইক্ষ্যংছড়ি।

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার দোছড়ি ইউনিয়নের লংগদুর মুখ এলাকা থেকে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে চার তামাক চাষীকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এবং মোটা অংকের মুক্তি পন দাবীর খবর পাওয়া গেছে। ২০ জানুয়ারি শনিবার ভোররাত ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। অপহৃতরা হলেন, রামু উপজেলার গর্জনিয়া ইউনিয়নের থোয়াঙ্গাকাটা গ্রামের বাসিন্দা নুরুল আলমের পুত্র আব্দুল আজিজ (১৬), একই গ্রামের বাসিন্দা আবদু রহমানের পুত্র আব্দুর রহিম (২৫), থিমছড়ি গ্রামের বাসিন্দা রদিশ আহামদের পুত্র শাহ আলম (৪০), অপরজন দোছড়ি ইউনিয়নের বাসিন্দা মৃত আলী মদনের পুত্র আবু সৈয়দ (৪২)। স্থানীয়রা জানান, জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার দোছড়ি ইউনিয়নের লংগদুর মুখ এলাকার একটি খামার বাড়ি থেকে ১০/১২জন সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা অস্ত্রের মুখে এ ৪ তামাক চাষীকে অপহরণ করে নিয়ে গেছে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। অপহৃতদের উদ্ধারে আশপাশের পাহাড়ী এলাকাগুলোতে অভিযান চালাচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

এছাড়া উপজেলার বাইশারী ইউনিয়নের থ্রি স্টার রাবার বাগানেও সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে বাগান পাহারাদার আব্দু শুক্কুরকে মারধর ও রক্ষিত মালামাল নিয়ে যায় বলে জানান বাগানের সুপার ভাইজার মোঃ ইউনুছ।

অপহৃত আব্দুল আজিজের পিতা নুরুল আলম জানান, তার ছেলেকে অপহরণের বিষয়টি তিনি স্থানীয় বাসিন্দাদের কাছ থেকে শুনেছেন। তবে এ পর্যন্ত কোন ধরনের মুক্তিপনও ছেলের বিষয়ে খোঁজখবর পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য গত কয়েক মাস আগেও দোছড়ি ইউনিয়নের ছাগল খাইয়া এলাকা থেকে তিন কৃষককে অপহরণ করেছিল। দীর্ঘ ৯দিন পর মুক্তিপনের বিনিময়ে তারা উদ্ধার হয়েছিল। এছাড়া বিগত দিনে বাঁকখালী, দোছড়ি, ছাগল খাইয়া এলাকা থেকে কমপক্ষে ২০ জনের অধিক লোকজনকে সন্ত্রাসীরা অপহরণ করেছিল। সকলেই মুক্তিপনের বিনিময়ে উদ্ধার হয়েছে বলে অপহৃতরা জানান।

এ বিষয়ে দোছড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো: হাবিবুল্লাহ বলেন, তামাক চাষী ৪জনকে খামার বাড়ী থেকে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে নিয়ে যাবার সংবাদ শুনেছি । ওরা সবাই তামাক চাষ করতে লংগদুর মুখ এলাকায় এসেছিল।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ আলমগীর জানান, তামাক চাষী ৪জনকে অপহরণের খবর পেয়েছি। তাদেরকে উদ্ধারের জন্য ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

Top