আপডেটঃ
সততার শক্তি অপরিসীম, সেটা আমরা বারবার প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছি৫৬ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা ঢাকা ডায়নামাইটসসর্বক্ষেত্রে আল্লাহ তা’আলার নির্দেশ মেনে চলার নাম ইবাদতকক্সবাজার জেলায় ওয়াইফাই জোন স্থাপনের নিমিত্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিতবেনাপোল পুটখালী ফেনসিডিল সহ আটক ৩ফরহাদ রেজার ঝড়ে হেরে গেলেন স্বাগতিক সিলেট সিক্সার্সযে আস্থা এবং বিশ্বাস নিয়ে জনগণ আমাকে ভোট দিয়েছে, সে মর্যাদা আমি রক্ষা করবঃ প্রধানমন্ত্রীঅবশেষে জ্বলে উঠল সাব্বিরবাংলাদেশের রাজনৈতিক দলগুলোকে ফের সংলাপে বসার আহ্বান জাতিসংঘআগামী সোমবার ঘটবে পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণসভামঞ্চে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের বিজয় সমাবেশ আজ‘জঙ্গিবাদ ও মাদকমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে তরুনরাই হবে আগামী দিনের সৈনিক’চট্টগ্রামে ৩টি হাইটেক পার্ক হচ্ছেপ্রতারণামূলক বাণিজ্য ‘১টি কিনলে ১০টি ফ্রি!’

চার পেসার নিয়েই খেলবে দক্ষিণ আফ্রিকা

South-Afrika.jpg

ওয়ান নিউজ ক্রীড়া ডেক্সঃ কেপ টাউন টেস্টে ৪ পেসার নিয়ে খেলেছিলো দক্ষিণ আফ্রিকা। ইনজুরির কারণে ডেল স্টেইন মাঠ ছাড়ার পরও বোলাদের দাপটে ভারতের বিপক্ষে দারুণ এক জয় তুলে আনতে পেরেছিলো প্রোটিয়ারা। পেসারদের এই পারফরম্যান্সে সন্তুষ্ট প্রোটিয়ার কোচ ওটিস গিবসন এরই মধ্যে জানিয়ে দিয়েছেন ঘরের মাঠে আগামীতেও চার পেসার নিয়ে খেলবে তার দল। দলের বর্তমান ব্যালেন্স ধরে রাখবেন তিনি।

গিবসন বলেছেন, ‘আমি খুবই ফাস্ট বোলিং মানসিকতার কোচ। আমি মনে করি, প্রথমে চার ফাস্ট বোলার দিয়ে দলে একটি ব্যালেন্স আনতে হবে। আমরা দেখেছি ৪ জন বোলার কন্ডিশনের সাথে মানিয়ে নিয়েছে। বিশেষ করে এই সিরিজ ও গ্রীষ্মের বাকি সিরিজগুলোর জন্য আমরা চার ফাস্ট বোলার ফর্মুলায় খেলে যাবো।’

ঘরের মাঠে তার পরিকল্পনা জানিয়ে গিবসন বলেছেন, ‘যখন আপনি ঘরের মাঠে খেলবেন, তখন আপনি শক্তি দিয়েই খেলতে চাইবেন। যখন আপনি ভারতের মতো বিশ্বের সেরা দলের সাথে খেলবেন, তখন আমাদের ভিন্ন কিছু করতে হবে; যেটা আমরা করেছি। ব্যাটে বলে আমাদের শক্ত হতে হবে।’

আগামী ১২ সপ্তাহে দক্ষিণ আফ্রিকা ঘরের মাঠে ৬টি টেস্ট খেলবে। এর মধ্যে দুইটি ভারতের বিপক্ষে। চারটি অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। কিন্তু গিবসনের ফর্মুলা কিছুটা প্রশ্নের মধ্যে পড়েছে। কারণ প্রথম টেস্টে ইনজুরির জন্য স্টেইনকে মাঠে বাইরে চলে যেতে হয়েছে। এছাড়া গত বছর ভারনন ফিল্যান্ডার, মরনে মরকেল, ক্রিস মরিস ইনজুরিতে পড়েছিলো।

Top