আপডেটঃ
সততার শক্তি অপরিসীম, সেটা আমরা বারবার প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছি৫৬ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা ঢাকা ডায়নামাইটসসর্বক্ষেত্রে আল্লাহ তা’আলার নির্দেশ মেনে চলার নাম ইবাদতকক্সবাজার জেলায় ওয়াইফাই জোন স্থাপনের নিমিত্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিতবেনাপোল পুটখালী ফেনসিডিল সহ আটক ৩ফরহাদ রেজার ঝড়ে হেরে গেলেন স্বাগতিক সিলেট সিক্সার্সযে আস্থা এবং বিশ্বাস নিয়ে জনগণ আমাকে ভোট দিয়েছে, সে মর্যাদা আমি রক্ষা করবঃ প্রধানমন্ত্রীঅবশেষে জ্বলে উঠল সাব্বিরবাংলাদেশের রাজনৈতিক দলগুলোকে ফের সংলাপে বসার আহ্বান জাতিসংঘআগামী সোমবার ঘটবে পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণসভামঞ্চে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের বিজয় সমাবেশ আজ‘জঙ্গিবাদ ও মাদকমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে তরুনরাই হবে আগামী দিনের সৈনিক’চট্টগ্রামে ৩টি হাইটেক পার্ক হচ্ছেপ্রতারণামূলক বাণিজ্য ‘১টি কিনলে ১০টি ফ্রি!’

প্রাপ্তবয়স্কদের ইচ্ছায় হস্তক্ষেপ করা যাবে না: ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

Supprem-Court-India.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ আমাদের সমাজে বারবারই প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয় নারীদের। তাদের পোশাক পরা থেকে শুরু করে বাড়ির বাইরে যাওয়া পর্যন্ত সব কিছুতেই বাধা নিষেধ। তবে এ ধরণের অন্যায্য ব্যবহারের বিরুদ্ধে শুক্রবার ক্ষোভ প্রকাশ করেছে ভারতের শীর্ষ আদালত। স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, একজন প্রাপ্তবয়স্ক নারী তার জীবন তার ইচ্ছে মতো বাঁচবেন। সেখানে হস্তক্ষেপ করার অধিকার কারো নেই।

এ ব্যাপারে প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র এবং বিচারপতি এ এম খানউইলকার ও ডি ওয়াই চন্দ্রচূড়ের একটি ডিভিশন বেঞ্চ এই রায় দেন। তারা জানিয়েছেন, ১৮ বছর বয়স হওয়ার পর ছেলেমেয়ে নির্বিশেষে প্রত্যেকেরই নিজের ইচ্ছেমতো জীবন কাটানোর অধিকার আছে। সে ক্ষেত্রে অযথা আদালত কেন কারো আইনি রক্ষক হবে। একজন মেয়ের ব্যক্তি স্বাধীনতার সম্পূর্ণ অধিকার রয়েছে। সে ক্ষেত্রে মা বা বাবার কোনো কথায় ভুলে আদালতের সুপার গার্ডেন হওয়ার কোনো প্রশ্নই ওঠে না।

সুপ্রিম কোর্ট তার রায়ে স্পষ্ট জানিয়ে দেন, ভারতের সংবিধান প্রত্যেকের জন্যে এক। মেয়েদের ব্যক্তি স্বাধীনতা তাদের মৌলিক অধিকার। সেখানে সমাজ বা পরিবার-পরিজন কোনোরকম হস্তক্ষেপ করতে পারে না।

Top