৭ দিনের সফরে আমেরিকা গেলেন লায়ন ইঞ্জিনিয়ার সাহেদ সালাউদ্দিন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
লায়ন্স ক্লাবস ইন্টারন্যাশনালের আমন্ত্রণে ৭ দিনের সফরে আমেরিকা গেলেন লায়ন্স ক্লাব অব কক্সবাজার ফ্রিডমের প্রেসিডেন্ট লায়ন ইঞ্জিনিয়ার মোঃ সাহেদ সালাউদ্দিন (এমজেএফ)।

মঙ্গলবার (৪ জুলাই) দিবাগত রাত তিনটার ফ্লাইটে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হয়ে আমেরিকার উদ্দেশ্যে তিনি বাংলাদেশ ত্যাগ করেন।

আমেরিকার বোস্টন শহরে  ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশনে আমন্ত্রিত ডেলিগেট হিসেবে যোগদান করবেন লায়ন ইঞ্জিনিয়ার মোঃ সাহেদ সালাউদ্দিন।

সেখানে বোস্টন কনভেনশন প্যারেড, বিজনেস/ডিজিই সেমিনার, মেলভিন জন্স ফেলোশীপ প্রোগ্রামসহ ইন্টারন্যাশনাল ডেলিগেটদের সঙ্গে তিনি মতবিনিময়ে মিলিত হবেন। ইন্টারন্যাশনাল লায়ন্স ক্লাবের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটিং কার্যক্রমেও অংশগ্রহণ করবেন।

বোস্টন থেকে ফিরে লন্ডনে ব্যবসায়িক ট্যুরে অংশগ্রহণ করবেন লায়ন ইঞ্জিনিয়ার মোঃ সাহেদ সালাউদ্দিন।

লায়ন্স ও ব্যক্তিগত  সফর শেষে আগামী ২৫ জুলাই দেশে ফেরার কথা রয়েছে। লায়ন্স ক্লাবের এই প্রথম কোন সদস্য কক্সবাজার থেকে আন্তর্জাতিক সেমিনারে আমন্ত্রিত ডেলিগেট হিসেবে যোগদান করছেন।

সময় স্বল্পতা ও কর্মব্যস্ততায় অনেক সুধীজন-বন্ধুমহলের সঙ্গে দেখা করতে না পারায় আন্তরিক দুঃখ প্রকাশ করেছেন লায়ন ইঞ্জিনিয়ার মোঃ সাহেদ সালাউদ্দিন। সেই সঙ্গে ক্লাবের সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। সফর শেষে যেন নিরাপদে দেশে ফিরতে পারেন, সবার দোয়া কামনা করেন।

মঙ্গলবার বিকালে ইঞ্জিনিয়ার মোঃ সাহেদ সালাউদ্দিনকে কক্সবাজার বিমানবন্দরে বিদায় জানান লায়ন্স ক্লাব অব কক্সবাজার ফ্রিডমের ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট লায়ন মিজানুল করিম, সেকেন্ডে ভাইস প্রেসিডেন্ট লায়ন শামসুদ্দিন ফারুকি, সার্ভিস চেয়ারপারসন লায়ন জাহাঙ্গীর আলম, মেম্বারশিপ চেয়ারপারসন লায়ন জসিম উদ্দিন, লায়ন ফারহান জান্নাত।

উল্লেখ্য, ইঞ্জিনিয়ার মোঃ সাহেদ সালাউদ্দিন ইতোপূর্বে থাইল্যান্ড, সৌদি আরব, ইন্ডিয়া, চায়না, দুবাই, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, ভিয়েতনাম, ফিলিপাইন, সুইডেন, জার্মানি, ফ্রান্স, ইতালি, সুইজারল্যান্ড, বেলজিয়াম, অস্ট্রিয়া, তুরস্কসহ পৃথিবীর প্রায় ৫০টি দেশ ভ্রমণ করেন। তিনি শিক্ষা ও সমাজ সেবামূলক কাজে দীর্ঘদিন ধরে জড়িত। মানবিকযোদ্ধা হিসেবে তার সুনাম-সুখ্যাতি রয়েছে।

ইঞ্জিনিয়ার মোঃ সাহেদ সালাউদ্দিন লায়ন্স ডিস্ট্রিক্ট ৩১৫এ-১ এর ন্যাশনাল কনভেনশনে “প্রগ্রেসিভ লায়ন্স অফ দ্যা ইয়ার-২০২২-২৩” নির্বাচিত হন। লায়ন্স ক্লাব অব কক্সবাজার ফ্রিডমের বিভিন্ন সামাজিক ও সেবামূলক কার্যক্রমে প্রশংসনীয় ভূমিকার স্বীকৃতি স্বরূপ সম্মাননা ক্রেস্ট ও সনদ প্রদান করা হয়েছে।

লায়ন ইঞ্জিনিয়ার সাহেদ কক্সবাজার শহরের বদর মোকাম এলাকার বাসিন্দা। তিনি স্বনামধন্য বিল্ডিং ডিজাইন ও নির্মাতা প্রতিষ্ঠান “গৃহ নির্মাণ নকসা” ও “জিএনএন এন্ড এইচ বিল্ডার্স” এর স্বত্বাধিকারী। একটি “লায়ন্স চক্ষু হাসপাতাল” প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন তার।

 

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.