সাবরাংয়ে নৌকার প্রচার গাড়িতে হামলা-ভাঙচুর, প্রার্থীর ছেলেসহ আহত ৪

টেকনাফ সংবাদদাতা:
টেকনাফের সাবরাংয়ে নৌকার প্রচার গাড়িতে অতর্কিত হামলার ঘটনা ঘটেছে। ভাঙচুর করা হয়েছে প্রচারণায় নিয়োজিত সিএনজি ও মাইক। এ সময় সশস্ত্র হামলায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আলহাজ্ব সোনা আলীর ছেলে হামিদ আলীসহ ৪ জন আহত হয়েছে।

আহত অন্যান্যরা হলেন- সাবরাং লেজিপাড়ার রহিম উল্লাহর ছেলে মো. ওসমান, কালা মিয়ার ছেলে মো. রফিক ও কাটাবনিয়ার আবদুর রহমানের ছেলে শামসুল আলম।

শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৮ টার দিকে সাবরাং ডেগিললারবিল এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।

আহতদের ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সেখানে দুইজনের অবস্থা গুরুতর।

আহত হামিদ আলী জানান, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী নুর হোসেনের ভাতিজা সেজান ও ফারুকের নেতৃত্বে ২০/২৫ জন লোক অতর্কিতভাবে মোটর সাইকেলযোগে পৌঁছে তাদের উপর আক্রমণ করে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে বেপরোয়া হামলা চালায়। এতে তারা আহত হয়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

নৌকার প্রার্থী সোনা আলীর ছেলে ফাহাদ আলী ফাহাদের অভিযোগ, নৌকার প্রচারকাজে নানাভাবে বাধাগ্রস্ত করছে বিদ্রোহী প্রার্থীর লোকজন। বিভিন্ন জায়গায় নৌকা মার্কার পোস্টার ছিঁড়ে ফেলছে। সন্ত্রাসী লেলিয়ে দিয়েছে। কর্মী সমর্থকদের হুমকি ধমকি ও মারধর করছে। নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা দিচ্ছে।

তিনি জানান, ভোটের দিন বহিরাগত ও রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী দিয়ে কেন্দ্র দখলের পাঁয়তারা চালাচ্ছে নুর হোসেন। ইতোমধ্যে এসব বিষয়ে তারা লিখিতভাবে নির্বাচন কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্টদের অভিযোগ করেছেন। সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করার দাবি জানান ফাহাদ আলী।

 

 

 

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.