‘সরকার শরণার্থী সমস্যার সমাধানে কাজ করে যাবে’

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ পারস্পরিক সৌহার্দ্য ও সমঝোতার ভিত্তিতে মিয়ানমার সরকারের সাথে সম্ভাবনাময় বহুমুখী সম্পর্ককে আরো সুদৃঢ় করার মধ্যদিয়ে সরকার শরণার্থী সমস্যার সুষ্ঠু ও স্থায়ী সমাধানের লক্ষ্যে কাজ করে যাবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

তিনি মঙ্গলবার সংসদে সরকারি দলের সদস্য বেগম পিনু খানের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অব্যাহত প্রচেষ্টা ও উদ্যোগের ফলশ্রুতিতে শান্তিপূর্ণভাবে আন্তর্জাতিক জনমতের ভিত্তিতে বাংলাদেশ নিজ ভূখন্ডে অবৈধভাবে প্রবেশকারী সকল মিয়ানমার নাগরিককে প্রত্যাবাসনে সমর্থ হবে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশে বিদ্যমান সাম্প্রদায়িক অস্থিতিশীলতা, মিয়ানমার সরকারের মুসলিম বিরোধী অভ্যন্তরীণ নীতিমালা এবং এ অঞ্চলের প্রতিকূল আর্থ-সামাজিক সমস্যার কারণে কয়েক দফায় মিয়ানমারের মুসলিম জনগোষ্ঠী সীমান্ত পেরিয়ে কক্সবাজারে আশ্রয় নিয়েছে।

আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেন, মিয়ানমারের নাগরিকদের প্রত্যাবাসনের জন্য দ্বিপাক্ষিক, আঞ্চলিক ও বহুপাক্ষিক কূটনৈতিক প্রচেষ্টা জোরদার করা হয়েছে। বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মাঝে অনুষ্ঠিত সকল দ্বিপাক্ষিক বৈঠক ও ফরেন অফিস কনসালটেশন-এ মিয়ানমার থেকে আগত সকল অনুপ্রবেশকারীকে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য সরকার নিয়মিত জোরালোভাবে দাবি উত্থাপন করে আসছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, জাতিসংঘ ও ওআইসিসহ অন্যান্য আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক সংস্থাসমূহের সহযোগিতায় বন্ধুপ্রতিম প্রতিবেশী দেশ মিয়ানমারের সাথে কূটনৈতিক আদান-প্রদান ও পারস্পরিক যোগাযোগের মাধ্যমে এই দীর্ঘমেয়াদী সমস্যাটির একটি গ্রহণযোগ্য সমাধানে উপনীত হওয়া যাবে। বাসস।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.