শীতলক্ষ্যায় লঞ্চডুবির ঘটনায় হত্যা মামলা

ডেস্ক নিউজ:
নারায়ণগঞ্জে শীতলক্ষ্যা নদীতে ‘এস কে ৩’ নামের লাইটার জাহাজের ধাক্কায় যাত্রীবাহী ‘সাবিত আল হাসান’ নামের লঞ্চ ডুবে ৩৫ জন নিহতের ঘটনায় একটি হত্যা মামলা করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)। মামলায় অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে লাইটার জাহাজের চালকসহ সংশ্লিষ্টদের।

মঙ্গলবার রাতে বন্দর থানায় মামলাটি করেন বিআইডব্লিউটিএ-এর সহকারি পরিচালক (ট্রাফিক ও নিরাপত্তা বিভাগ) বাবুলাল বৈদ্য।

বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিপক সাহা জানান, লাইটারেজের সংশ্লিষ্টদের অজ্ঞাতনামা আসামি করে মামলা হয়েছে। পুলিশ জাহাজটিকে আটকসহ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় আনবে।

গত রোববার নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় লঞ্চ টার্মিনাল থেকে সাবিত আল হাসান নামের লঞ্চটি অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে বিকেল ৬টায় মুন্সীগঞ্জ লঞ্চ টার্মিনালের উদ্দেশে ছেড়ে যায়। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে লঞ্চটি শীতলক্ষ্যা নদীর সদর উপজেলার কয়লাঘাট এলাকায় গেলে পেছন থেকে একটি লাইটারেজ জাহাজের ধাক্কায় নদীতে তলিয়ে যায়। এ ঘটনায় উদ্ধার অভিযানে নামে ফায়ার সার্ভিস, বিআইডব্লিউটিএ, নৌবাহিনীর ডুবুরি দল ও নৌ-পুলিশের সদস্যেরা। যাত্রীবাহী লঞ্চডুবির এই ঘটনায় মোট ৩৫ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়।

মন্তব্য করুন

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্র রিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোন মন্তব্য বা বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোন ধরনের আপত্তিকর মন্তব্য বা বক্তব্য সংশোধনের ক্ষমতা রাখেন।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.