রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরার পরিস্থিতি এখনো হয়নি: জাতিসংঘ

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতনের মুখে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের নিরাপদে সেদেশে ফেরার মতো পরিস্থিতি এখনো রাখাইনে তৈরি হয়নি বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর। শুক্রবার ইউএনএইচসিআরের মুখপাত্র আদ্রিয়ান অ্যাডওয়ার্ড জেনেভায় এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেছেন। ইউএনএইচসিআরের মুখপাত্র বলেন, ‘ওই সম্মতিপত্রে কী আছে, তা এখনো আমরা দেখিনি। তবে সহিংসতার শিকার হওয়া মিয়ানমারের ওই জনগোষ্ঠীর রাখাইনে ফেরার বিষয়টি যেন স্বেচ্ছায় এবং নিরাপদে হয়, তা নিশ্চিত করার ওপর জোর দিতে হবে।

তিনি আরো বলেন, ‘প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ায় অবশ্যই আন্তর্জাতিক মান বজায় রাখতে হবে এবং এ বিষয়ে সহযোগিতা করতে আমরা প্রস্তুত রয়েছি।’

রাখাইনে সেনাবাহিনীর দমন-পীড়নের মুখে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের ঘরে ফেরার পথ তৈরি করতে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে একটি সমোঝতা চুক্তি স্বাক্ষর হওয়ার পরদিনই জাতিসংঘ থেকে এ ধরনের প্রতিক্রিয়া এলো।

বৃহস্পতিবার সকালে মিয়ানমারের রাজধানী নেইপিদোতে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী এবং মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চির সঙ্গে বৈঠকের পর রোহিঙ্গাদের ফেরাতে এ চুক্তি স্বাক্ষর হয়। এর প্রতিক্রিয়ায় বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এই চুক্তি স্বাক্ষরকে বড় ধরনের কূটনৈতিক সাফল্য বলে দাবি করেন।

চলতি বছরের আগস্ট মাসের শেষের দিকে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে শুরু হয় সেনা অভিযান। এসময় হত্যা, গণধর্ষণ ও নির্যাতন থেকে বাঁচতে প্রায় সাড়ে ৬ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আশ্রয় নিয়েছে।

জাতিগত নিধনে দেশটির সামরিক বাহিনীর সঙ্গে যোগ দেয় স্থানীয় উগ্রবাদী বৌদ্ধ জনগোষ্ঠীও। আক্রান্ত রোহিঙ্গা মুসলিমদের বাঁচাতে ও আশ্রয় দিতে বাংলাদেশ সরকার সীমান্ত খুলে দেয় এবং তাদের পাশে দাঁড়ায়।

Comments are closed.