রোহিঙ্গাদের পাশে কক্সবাজার ছাত্রলীগের ‘সেঞ্চুরি’

নেজাম উদ্দিন।

মিয়ানমার থেকে নির্যাতনের কারণে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের চিকিৎসা সেবায় ১০০ দিন পার করল ছাত্রলীগ। এই একশ দিনে ৩৪ হাজার ৭৮৫ জন রোহিঙ্গাকে চিকিৎসা সেবা ও ওষুধ সরবরাহ করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ছাত্র সংগঠনটি।

গত অক্টোবরে মিয়ানমারে সেনা অভিযানের মুখে বাংলাদেশের কক্সবাজারের দিকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় হয়েছে বিভিন্ন ক্যাম্পে। তাদের দুর্দশার কথা জানতে পেরে বিভিন্ন দেশের পাশাপাশি বাংলাদেশ সরকার, বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক সংগঠন, বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা এমনকি সাধারণ মানুষ বাড়িয়ে দিয়েছে সাহায্যের হাত।

এর মধ্যে আছে ছাত্রলীগও। নানা সময় কর্মীদের নানা কাজের জন্য বিতর্কিত হলেও সংগঠনটি তার জনসেবার ঐতিহ্য যে ধরে রেখেছে সেটি প্রমাণ করেছে কক্সবাজার ছাত্রলীগ।

রোহিঙ্গাদের প্রাথমিক চাহিদা খাদ্যর দিকেই প্রথম নজর দিয়েছিল সহায়তা প্রদানকারীরা। ছাত্রলীগ এই বিষয়টির পাশাপাশি গুরুত্ব দিয়েছে স্বাস্থ্যসেবার বিষয়টিতে।

ছাত্রলীগ নেতারা জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে রোহিঙ্গাদের চিকিৎসা সেবায় একটি মনিটরিং সেল ও বিনামূল্যে মেডিকেল ক্যাম্প চালু করেন তারা। কক্সবাজার ছাত্রলীগের তত্ত্বাবধানে উখিয়ার বালুখালীস্থ টিভি টাওয়ার এলাকায় স্থাপন করা হয় ক্যাম্পটি।

এখান থেকে প্রতিদিন চিকিৎসা সেবা, ওষুধ ও বিশুদ্ধ পানি বিতরণ করা হচ্ছে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত চলে এই সেবা। চালু হওয়ার পর প্রাকৃতিক দুর্যোগ, সাপ্তাহিক ছুটি বা অন্য কোনো বন্ধে এই সেবা বন্ধ থাকেনি বলেও জানিয়েছেন ছাত্রলীগ নেতারা।

কক্সবাজার ছাত্রলীগের সভাপতি ইশতিয়াক আহমদ জয় ঢাকাটাইমসে কলেন, ‘বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা মানবতার নেত্রী। মানবিক কারণেই তিনি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে সব ধরনের সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। তারই অংশ হিসেবে ছাত্রলীগের এই কার্যক্রম চালু করা হয়।’

জয় জানান, আজ পর্যন্ত এই ক্যাম্পে ছয় হাজার ৩৫৬ জন পুরুষ, ১০ হাজার ৭৮৯ জন নারী ও ১৭ হাজার ৬৪০ টি শিশুকে সেবা দেয়া হয়েছে।

শুক্রবার কক্সবাজার সফরে এসে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ছাত্রলীগের এই মনিটরিং সেল ও মেডিকেল ক্যাম্প পরিদর্শনে আসেন।  এসময় তিনি ছাত্রলীগের কার্যক্রমের প্রশংসা করে জনসেবার এই উদ্যোগ চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান।

 

এর আগে কয়েক দফায় এই ক্যাম্প পরিদর্শন করেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ কেন্দ্রীয় ছাত্র সংগঠনটির নেতারা।

Comments are closed.