রামুতে বনকর্মীর উপর হামলা, আহত ২৮

মোঃ নেজাম উদ্দিন,
কক্সবাজারের রামুতে বনবিভাগের জমির উপর অবৈধভাবে ২০টি পাকা ঘর নির্মাণের সময় বনবিভাগ ঘর নির্মাণে বাধাঁ দিলে দখলদার দুর্বৃত্তদের হামলায় দুই বিট কর্মকর্তাসহ অন্তত ২৮জন বন কর্মী আহত হয়েছেন। রাজারকুল বিট কর্মকর্তা জহির আলম মারাত্বক আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। তাকে চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজে রেফার করা হয়েছে বলে জানান।
মঙ্গলবার (২৬সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রামু উপজেলার রাজারকুল রেঞ্জের দাড়িয়ার দীঘি বিটের খুনিয়াপালং মৌজার কম্বনিয়া এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

হামলায় আহত হয়েছেন কক্সবাজার (দক্ষিণ) বন বিভাগের রাজারকুল বিট কর্মকর্তা জহির আলম ও দাড়িয়ার দীঘি বিট কর্মকর্তা আরজু মিয়াসহ ২৮জন আহত ।  রাজারকুল রেঞ্জাধীন দাড়িয়ার দীঘি বিটের খুনিয়াপালং মৌজার কম্বনিয়া নামক এলাকায় বেসরকারি এনজিও থেকে ঘর নির্মানের জন্য এক কালীন প্রত্যকে ৭০ হাজার করে টাকা দেওয়া হয় বলে জানা যায়। ঐ টাকা দিয়ে ২০ জন এক সাথে অবৈধভাবে জবরদখল করে বনভুমিতে ২০টি পাকা ঘর নির্মাণের চেষ্টা করায় সকালে সহকারী বন সংরক্ষক (দক্ষিণ) আনিসুর রহমান এর উপস্থিতিতে বাধা প্রদান করলে জবরদখলকারী প্রায় কয়েকশত লোক একত্রে লাঠি ও ইট পাটকেল দিয়ে বন কর্মীদের আক্রমণ করে। এতে ২৮জন বন কর্মী আহত হয়। পরে তাদের রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয় বলে জানান। এছাড়া ৩জন মারাত্মক ভাবে আহত হওয়ায় রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছে ও রাজারকুল সদর বিট কর্মকর্তা জহির আলমের অবস্থা আশংঙ্কাজনক হওয়ার কারণে তাকে চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।এদিকে দাড়িয়ার দীঘি বিট কর্মকর্তা আরজু মিয়ার এর অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

সহকারী বন সংরক্ষক (দক্ষিণ) আনিসুর রহমান জানান, প্রায় শতাধিক নারী-পুরুষ বনকর্মীদের উপর দফায় হামলা চালায়। তিনি বলেন, কছিু রোক বনবিভাগের জমির উপর অবৈধভাবে দখল করে পাকা দালান করছিল তা খবর পেয়ে আমি ও স্থানীয় বিট কর্মকর্তামহ গিয়ে তাদের বাড়ি করতে বাধা প্রদান করা হলে তারা আমাদের উপর আমাদের উপর হা,লা করে বসে । এতে প্রায় ২৮জন বনকর্মী আহত হয়েছে। রাজারকুল বিট কর্মকর্তা জহিরুল আলমের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় রাতেই তাকে চট্রগ্রাম মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে।।

কক্সবাজার দক্ষিণ বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ সারওয়ার আলম জানান, গত কয়েকদিন ধরে বন বিভাগের জমিতে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করছিল একদল ভূমিদস্যু। খবর পেয়ে আজ সকালে তাদের উচ্ছেদ করতে গেলে একদল দুর্বৃত্ত অতর্কিত হামলা চালায়। এতে অন্তত২৮ জন বনকর্মী আহত হন। যারা অবৈধ দখলকারি হামলাকারি তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

 

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.