যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে দুই করোনা রোগীর মৃত্যু

ইয়ানূর রহমান : গত ২৪ ঘণ্টায় যশোর জেনারেল হাসপাতালে দুই করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এর আগের ২৪ ঘণ্টায়ও দুইজন মারা গিয়েছিলেন।

আর সোমবার সকাল আটটা থেকে মঙ্গলবার বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত জেনারেল হাসপাতালে ২৩ করোনা রোগীকে ভর্তি করা হয়েছে; যাদের মধ্যে একজন ভারতীয় নাগরিকও রয়েছেন। ২৪ ঘণ্টায় মৃত দুইজন হলেন, নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার দিঘলিয়া গ্রামের নূরুল ইসলামের ছেলে আবুল কাশেম (৪৫) ও ঝিকরগাছা উপজেলার বাঁকড়া গ্রামের বিষুপদ পালের ছেলে জগন্নাথ পাল (৬৫)। কাশেম এনজিও কর্মকর্তা ছিলেন বলে উল্লেখ করা হয়।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আরিফ আহম্মেদ জানান, ঝিকরগাছার জগন্নাথ পাল নামে এক ব্যক্তি গত ৪-৫ দিন বাড়িতে জ্বরে আক্রান্ত ছিলেন। পরে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে প্রথমে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার শরীর থেকে নমুনা নিয়ে করোনা পরীক্ষার জন্য ল্যাবে পাঠানো হয়। এরই মধ্যে সোমবার বিকেলে অবস্থা শংকটাপন্ন হয়ে পড়ায় স্বজনরা তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে আনেন। তাকে এই হাসপাতালের ইয়েলো জোনে ভর্তি করে নেন কর্তৃপক্ষ। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার সকাল দশটার দিকে তার মৃত্যু হয়। পরে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (যবিপ্রবি) জেনোম সেন্টার থেকে পাওয়া রেজাল্টে জগন্নাথ করোনায় আক্রান্ত ছিলেন বলে নিশ্চিত হওয়া যায়।

এদিকে কর্তৃপক্ষ বলছেন, গেল ২৪ ঘণ্টায় যশোর জেনারেল হাসপাতালে এমন ২৩ জনকে ভর্তি করা হয়েছে, যারা হয় করোনায় আক্রান্ত অথবা সন্দিগ্ধ। ভর্তি ২৩ জনের মধ্যে ১১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বাকি ১২ জন পরীক্ষার ফলাফল আসার অপেক্ষায় আছেন।

মন্তব্য করুন

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্র রিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোন মন্তব্য বা বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোন ধরনের আপত্তিকর মন্তব্য বা বক্তব্য সংশোধনের ক্ষমতা রাখেন।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.