মালিতে বোমা হামলায় জাতিসংঘের ৭ শান্তিরক্ষী নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
পশ্চিম আফ্রিকার দেশ মালিতে বোমা হামলায় জাতিসংঘের সাত শান্তিরক্ষী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন আরও তিন শান্তিরক্ষী। বুধবার (৮ ডিসেম্বর) মালির মধ্যাঞ্চলীয় এলাকায় রাস্তার পাশে পুঁতে রাখা বোমা বিস্ফোরণে হতাহতের এই ঘটনা ঘটে বলে এক প্রতিদেনে জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বুধবার মালির দোউয়েন্তজা শহর থেকে সিভারে শহরে যাচ্ছিল জাতিসংঘের শান্তিরক্ষী বাহিনীর একটি লজিস্টিকস কনভয়। পথিমধ্যে মোপতি অঞ্চলের বানদিয়াগারা এলাকায় পৌঁছালে তাদের কনভয়ে একটি ইমপ্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (আইইডি) আঘাত করে।

এতে জাতিসংঘের সাত শান্তিরক্ষী নিহত হন এবং আরও তিনজন মারাত্মক আহত হন। আলজাজিরা বলছে, মালির ওই এলাকাতে আল-কায়েদা ও ইসলামিক স্টেট (আইএস) সংশ্লিষ্ট জঙ্গিগোষ্ঠীগুলো সক্রিয় রয়েছে। অবশ্য তাৎক্ষণিকভাবে কোনো গ্রুপ ওই হামলার দায় স্বীকার করেনি।

আফ্রিকা মহাদেশের অন্যতম বৃহৎ দেশ মালি খুবই দরিদ্র। ফ্রান্সের নেতৃত্বে একটি আন্তর্জাতিক বাহিনী গত ৯ বছর ধরে দেশটিকে স্থিতিশীল করার চেষ্টা করলেও অভ্যন্তরীণ সহিংসতা মোকাবিলায় মালি এখনও কার্যত সংগ্রাম করে যাচ্ছে।

এই পরিস্থিতিতে মালিতে শান্তি ফেরানোর দায়িত্ব নেয় জাতিসংঘ। আফ্রিকার এই দেশটিতে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনটি ‘মিনুজমা’ নামে পরিচিত। এই মিশনের আওতায় মালিতে বর্তমানে ১৩ হাজারেরও বেশি শান্তিরক্ষী মোতায়েন রয়েছে।

মালির উত্তর ও মধ্যাঞ্চলে সশস্ত্র গোষ্ঠীদের সহিংসতা ও সংঘাত বন্ধের লক্ষ্যেই কাজ করছেন শান্তিরক্ষীরা। জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, দায়িত্বপালন করতে গিয়ে ২০১৩ সাল থেকে দেশটিতে ২৩০ জনের বেশি শান্তিরক্ষী নিহত হয়েছেন।

এর আগে গত অক্টোবর মাসে সন্ত্রাসীদের হামলায় মালিতে এক শান্তিরক্ষী নিহত হয়েছিলেন। একইভাবে চলতি বছরের এপ্রিলে দেশটির উত্তরাঞ্চলে সন্ত্রাসীদের হামলায় শাদের চার শান্তিরক্ষী নিহত হয়। এরপর গত জুন মাসে ওই একই অঞ্চলে গাড়ি বোমা হামলায় আহত হন জাতিসংঘের ১৩ শান্তিরক্ষী।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.