মসজিদের মানতের মাংস ভাগাভাগি নিয়ে সংঘর্ষে যুবক নিহত, আটক ৩

ডেস্ক নিউজ:
কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ঝাউদিয়া শাহী মসজিদে মানতের মাংস ভাগাভাগিকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে কবির খান (৩৫) নামের একজন নিহত হয়েছেন। শনিবার বিকেল ৩টার দিকে ঝাউদিয়া শাহী মসজিদ প্রাঙ্গণে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

নিহত কবির খান ঝাউদিয়া শাহী মসজিদপাড়া এলাকার মৃত মান্নান খানের ছেলে।

ঝাউদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কেরামত আলী বিশ্বাস জানান, গত কয়েক সপ্তাহ ধরে ঝাউদিয়া শাহী মসজিদে মানতের মাংস ভাগাভাগি ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। আজ মানতের জন্য চুয়াডাঙ্গা জেলার দর্শনা এলাকা থেকে কয়েকজন মানুষ ঝাউদিয়া শাহী মসজিদে আসেন। তারা মানত হিসেবে মসজিদে একটি খাসি দেন। সেই খাসির মাংস ভাগাভাগিকে কেন্দ্র করে আসাদ চৌধুরী ও মুরাদ চৌধুরী গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষ ঠেকাতে গিয়ে লাঠির আঘাতে কবির খানের মৃত্যু হয়।

কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুস্তাফিজুর রহমান রতন হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ওই গ্রামে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে মুরাদ চৌধুরী, আসাদ চৌধুরী ও মিঠু চৌধুরীকে আটক করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, রোগ-বালায় বিপদ-আপদ থেকে মুক্তি পেতে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের শতশত মানুষ এই ঝাউদিয়া শাহী মসজিদে নগদ টাকা, ছাগল-মুরগিসহ বিভিন্ন জিনিস মানত করে এবং প্রতিনিয়তই মানতের এসব জিনিসপত্র এই মসজিদে দিতে আসে। এসব মানতের টাকা, ছাগল মুরগি ভাগাভাগি করে নেই এলাকার প্রভাবশালীরা।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.